০১:২৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছরে মেঘালয়ে বাংলাদেশের প্রতিনিধিদল

মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণ জয়ন্তী ও ‘আজাদী কা অমৃত মহোৎসব’এর অংশ হিসাবে চার দিনের জন্য ভারতের মেঘালয় সফরে গিয়েছেন ২৫ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল। পারষ্পরিক সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে এ সফরের আয়োজন করছে ভারত সরকার।
জানা গিয়েছে, ০৯ মে, সোমবার থেকে ১২ মে, বৃহস্পতিবার, পর্যন্ত অনুষ্ঠিত সফরে অংশ নিয়েছেন ১৮ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পেশার বাংলাদেশি।
উল্লেখ্য, সফরে অংশ নেওয়া মুক্তিযোদ্ধারা ১৯৭১ সালে মেঘালয়ে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছিলেন এবং ১১ নম্বর সেক্টরে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন।
সফরে মেঘালয় সরকারের গভর্নর, মুখ্যমন্ত্রীর পাশাপাশি উর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল। এছাড়া ভারতীয় সেনাবাহিনী, ভারতীয় বিমান বাহিনী ও ভারতের সীমান্ত নিরাপত্তা বাহিনীর সিনিয়র অফিসারদের সঙ্গেও দেখা করার কথা রয়েছে তাদের।
সফরটি বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের সদস্য ও ভারতীয় আয়োজকদের ১৯৭১ সালের যুদ্ধের মুহূর্তগুলো স্মরণের সুযোগ করে দেবে এবং পারষ্পরিক সংযোগ ও বন্ধুত্বকে আরও গভীর করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে ভারতের পররাষ্ট্র দপ্তর।
আগামীতে ‘আজাদি কা অমৃত মহোৎসব’ উদযাপনের অংশ হিসাবে বাংলাদেশের সাথে আরও সফর ও মিথস্ক্রিয়া করার পরিকল্পনা করেছে ভারত সরকার। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক।
ট্যাগ:

মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছরে মেঘালয়ে বাংলাদেশের প্রতিনিধিদল

প্রকাশ: ০৪:৩৫:০৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ মে ২০২২
মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণ জয়ন্তী ও ‘আজাদী কা অমৃত মহোৎসব’এর অংশ হিসাবে চার দিনের জন্য ভারতের মেঘালয় সফরে গিয়েছেন ২৫ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল। পারষ্পরিক সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে এ সফরের আয়োজন করছে ভারত সরকার।
জানা গিয়েছে, ০৯ মে, সোমবার থেকে ১২ মে, বৃহস্পতিবার, পর্যন্ত অনুষ্ঠিত সফরে অংশ নিয়েছেন ১৮ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পেশার বাংলাদেশি।
উল্লেখ্য, সফরে অংশ নেওয়া মুক্তিযোদ্ধারা ১৯৭১ সালে মেঘালয়ে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছিলেন এবং ১১ নম্বর সেক্টরে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন।
সফরে মেঘালয় সরকারের গভর্নর, মুখ্যমন্ত্রীর পাশাপাশি উর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল। এছাড়া ভারতীয় সেনাবাহিনী, ভারতীয় বিমান বাহিনী ও ভারতের সীমান্ত নিরাপত্তা বাহিনীর সিনিয়র অফিসারদের সঙ্গেও দেখা করার কথা রয়েছে তাদের।
সফরটি বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের সদস্য ও ভারতীয় আয়োজকদের ১৯৭১ সালের যুদ্ধের মুহূর্তগুলো স্মরণের সুযোগ করে দেবে এবং পারষ্পরিক সংযোগ ও বন্ধুত্বকে আরও গভীর করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে ভারতের পররাষ্ট্র দপ্তর।
আগামীতে ‘আজাদি কা অমৃত মহোৎসব’ উদযাপনের অংশ হিসাবে বাংলাদেশের সাথে আরও সফর ও মিথস্ক্রিয়া করার পরিকল্পনা করেছে ভারত সরকার। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক।