০৮:৪৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চাবাহার বন্দর কাজে লাগাবে ভারত, উজবেকিস্তান

দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য এগিয়ে নিতে চাবাহার বন্দরের পূর্ণ সম্ভাবনা কাজে লাগাতে সম্মত হয়েছে ভারত ও উজবেকিস্তান। ১১ মে, বুধবার, তথ্যটি নিশ্চিত করে এক বিবৃতিতে ভারতীয় পররাষ্ট্র দপ্তর জানিয়েছে, ১৫তম ভারত-উজবেকিস্তান ফরেন অফিস কনসালটেশনে (এফওসি) আফগানিস্তান সহ পারস্পরিক স্বার্থের আঞ্চলিক এবং আন্তর্জাতিক বিষয়ে মতামত বিনিময় করার সময় বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, ভারত ইরানের চাবাহার বন্দরের শহীদ বেহেস্তি টার্মিনালের উন্নয়ন করছে, যা ল্যান্ডলকড আফগানিস্তানে অনেক প্রয়োজনীয় সমুদ্র-অ্যাক্সেস প্রদান করেছে। আন্তর্জাতিক পরিবহন ও ট্রানজিট করিডোর (চাবাহার চুক্তি) প্রতিষ্ঠার জন্য একটি ত্রিপক্ষীয় চুক্তি ভারত, ইরান এবং আফগানিস্তানের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ২০১৬ সালের মে মাসে ইরান সফরের সময় স্বাক্ষরিত হয়েছিল।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অনুসারে জানা গিয়েছে, বুধবারের আলোচনার সময়, উভয় পক্ষ রাষ্ট্রের একটি ব্যাপক পর্যালোচনা করেছে এবং রাজনৈতিক, নিরাপত্তা, বাণিজ্য-অর্থনৈতিক, সংযোগ, উন্নয়ন অংশীদারিত্ব, মানবিক ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রের সহ দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার সম্ভাবনা নিয়ে মতবিনিময় করেছে।

বিবৃতিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, “আলোচনা বিশেষত বৃহত্তর অর্থনৈতিক সহযোগিতা এবং ভারত ও উজবেকিস্তানের মধ্যে সংযোগ বাড়ানোর পদক্ষেপের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করেছিলো। একই সাথে, জাতিসংঘ, এসসিও এবং অন্যান্য বহুপাক্ষিক ফোরামে সহযোগিতা আরও বাড়াতে সম্মত হয়েছে। এছাড়া, ভারতীয় পক্ষ উজবেকিস্তানের এসসিও-র চলমান সভাপতিত্বের প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে। উভয় পক্ষই ২০২২ সালের জানুয়ারীতে ১ম ভারত-মধ্য এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনের আয়োজনের মূল্যায়ন করেছে এবং অন্যান্য মধ্য এশিয়ার দেশগুলির সাথে এর ফলাফল দ্রুত বাস্তবায়ন করতে সম্মত হয়েছে।”

বৈঠকে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেন পররাষ্ট্র দপ্তরের সচিব (পশ্চিম) সঞ্জয় ভার্মা এবং উজবেকিস্তান প্রজাতন্ত্রের পররাষ্ট্র বিষয়ক উপমন্ত্রী ফুরকাত সিদিকভ। এর আগে সর্বশেষ, ২০২০ সালের নভেম্বরে উভয় দেশের মধ্যকার সর্বশেষ পররাষ্ট্র কর্মকর্তা পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিলো। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

চাবাহার বন্দর কাজে লাগাবে ভারত, উজবেকিস্তান

প্রকাশ: ০৫:০৯:৫৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ মে ২০২২

দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য এগিয়ে নিতে চাবাহার বন্দরের পূর্ণ সম্ভাবনা কাজে লাগাতে সম্মত হয়েছে ভারত ও উজবেকিস্তান। ১১ মে, বুধবার, তথ্যটি নিশ্চিত করে এক বিবৃতিতে ভারতীয় পররাষ্ট্র দপ্তর জানিয়েছে, ১৫তম ভারত-উজবেকিস্তান ফরেন অফিস কনসালটেশনে (এফওসি) আফগানিস্তান সহ পারস্পরিক স্বার্থের আঞ্চলিক এবং আন্তর্জাতিক বিষয়ে মতামত বিনিময় করার সময় বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, ভারত ইরানের চাবাহার বন্দরের শহীদ বেহেস্তি টার্মিনালের উন্নয়ন করছে, যা ল্যান্ডলকড আফগানিস্তানে অনেক প্রয়োজনীয় সমুদ্র-অ্যাক্সেস প্রদান করেছে। আন্তর্জাতিক পরিবহন ও ট্রানজিট করিডোর (চাবাহার চুক্তি) প্রতিষ্ঠার জন্য একটি ত্রিপক্ষীয় চুক্তি ভারত, ইরান এবং আফগানিস্তানের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ২০১৬ সালের মে মাসে ইরান সফরের সময় স্বাক্ষরিত হয়েছিল।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অনুসারে জানা গিয়েছে, বুধবারের আলোচনার সময়, উভয় পক্ষ রাষ্ট্রের একটি ব্যাপক পর্যালোচনা করেছে এবং রাজনৈতিক, নিরাপত্তা, বাণিজ্য-অর্থনৈতিক, সংযোগ, উন্নয়ন অংশীদারিত্ব, মানবিক ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রের সহ দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার সম্ভাবনা নিয়ে মতবিনিময় করেছে।

বিবৃতিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, “আলোচনা বিশেষত বৃহত্তর অর্থনৈতিক সহযোগিতা এবং ভারত ও উজবেকিস্তানের মধ্যে সংযোগ বাড়ানোর পদক্ষেপের উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করেছিলো। একই সাথে, জাতিসংঘ, এসসিও এবং অন্যান্য বহুপাক্ষিক ফোরামে সহযোগিতা আরও বাড়াতে সম্মত হয়েছে। এছাড়া, ভারতীয় পক্ষ উজবেকিস্তানের এসসিও-র চলমান সভাপতিত্বের প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে। উভয় পক্ষই ২০২২ সালের জানুয়ারীতে ১ম ভারত-মধ্য এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনের আয়োজনের মূল্যায়ন করেছে এবং অন্যান্য মধ্য এশিয়ার দেশগুলির সাথে এর ফলাফল দ্রুত বাস্তবায়ন করতে সম্মত হয়েছে।”

বৈঠকে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেন পররাষ্ট্র দপ্তরের সচিব (পশ্চিম) সঞ্জয় ভার্মা এবং উজবেকিস্তান প্রজাতন্ত্রের পররাষ্ট্র বিষয়ক উপমন্ত্রী ফুরকাত সিদিকভ। এর আগে সর্বশেষ, ২০২০ সালের নভেম্বরে উভয় দেশের মধ্যকার সর্বশেষ পররাষ্ট্র কর্মকর্তা পর্যায়ের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিলো। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক