১০:৫৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মোদীর লুম্বিনি সফরে ছয় চুক্তি ভারত-নেপালের

চার দিনের সফরে সোমবার (১৬ মে) নেপালে পৌঁছেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ২০২০ সালে সীমান্ত বিরোধের কারণে দু’দেশের সম্পর্কে কিছুটা ছেদ পড়ে। ধারণা করা হচ্ছে, সেই সম্পর্ক মেরামত করতেই নরেন্দ্র মোদীর এ সফর।

জানা গেছে, বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে লুম্বিনিতে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী। বৌদ্ধ ধর্মের প্রবর্তক গৌতম বুদ্ধের জন্ম হয়েছিল বলে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের কাছে পবিত্রতম স্থানগুলোর মধ্যে একটি এই লুম্বিনি।

নরেন্দ্র মোদী ও তার সফর সঙ্গীরা উত্তর প্রদেশের কুশিনগর থেকে ভারতীয় বিমান বাহিনীর একটি বিশেষ হেলিকপ্টারে করে নেপালে পৌঁছান। লুম্বিনিতে পৌঁছানোর পর ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানো হয়। নেপালের প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দেউবা, তার স্ত্রী আরজু দেউবা এবং নেপালের একাধিক মন্ত্রী তাকে স্বাগত জানান।

ভারতীয় পররাষ্ট্র দপ্তর জানিয়েছে, মোদীর লুম্বিনী সফরে নেপালের সাথে ছয়টি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে ভারত। সেগুলো যথাক্রমে:

১. বৌদ্ধ অধ্যয়নের জন্য ডঃ আম্বেদকর চেয়ার প্রতিষ্ঠার বিষয়ে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ কালচারাল রিলেশন্স (আইসিসিআর) এবং লুম্বিনি বৌদ্ধ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সমঝোতা স্মারক

২. ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ কালচারাল রিলেশন্স (আইসিসিআর) এবং সিএনএএস, ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে আইসিসিআর চেয়ার অফ ইন্ডিয়ান স্টাডিজ প্রতিষ্ঠার বিষয়ে সমঝোতা স্মারক

৩. ইন্ডিয়ান স্টাডিজের আইসিসিআর চেয়ার প্রতিষ্ঠার বিষয়ে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ কালচারাল রিলেশন্স (আইসিসিআর) এবং কাঠমান্ডু ইউনিভার্সিটি (কেইউ) এর মধ্যে সমঝোতা স্মারক

৪. কাঠমান্ডু বিশ্ববিদ্যালয় (কেইউ), নেপাল এবং ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি মাদ্রাজ (আইআইটি-এম), ভারতের মধ্যে সমঝোতা স্মারক

৫. কাঠমান্ডু বিশ্ববিদ্যালয় (কেইউ), নেপাল এবং ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি (আইআইটি-এম), ভারতের মধ্যে চুক্তি পত্র [মাস্টার্স লেভেলে জয়েন্ট ডিগ্রি প্রোগ্রামের জন্য]

৬. অরুণ ৪ প্রকল্পের উন্নয়ন ও বাস্তবায়নের জন্য এসজেভিএন লিমিটেড এবং নেপাল ইলেকট্রিসিটি অথরিটির (এনইএ) মধ্যে চুক্তি

উল্লেখ্য, ২০১৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত নেপালে পাঁচবার সফর করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সফরকালে তিনি লুম্বিনি ডেভেলপমেন্ট ট্রাস্ট আয়োজিত বুদ্ধ জয়ন্তী অনুষ্ঠানে ভাষণ দেবেন বলে জানা গেছে।

এই সফরে বিভিন্ন ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা প্রসারিত করার জন্য আলোচনা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও নেপালি প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দেউবা। জানা গেছে, জলবিদ্যুৎসহ আরও বেশ কয়েকটি উন্নয়নমূলক ইস্যুতে আলোচনা করবেন তারা। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

মোদীর লুম্বিনি সফরে ছয় চুক্তি ভারত-নেপালের

প্রকাশ: ০৪:০৪:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৬ মে ২০২২

চার দিনের সফরে সোমবার (১৬ মে) নেপালে পৌঁছেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ২০২০ সালে সীমান্ত বিরোধের কারণে দু’দেশের সম্পর্কে কিছুটা ছেদ পড়ে। ধারণা করা হচ্ছে, সেই সম্পর্ক মেরামত করতেই নরেন্দ্র মোদীর এ সফর।

জানা গেছে, বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে লুম্বিনিতে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী। বৌদ্ধ ধর্মের প্রবর্তক গৌতম বুদ্ধের জন্ম হয়েছিল বলে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের কাছে পবিত্রতম স্থানগুলোর মধ্যে একটি এই লুম্বিনি।

নরেন্দ্র মোদী ও তার সফর সঙ্গীরা উত্তর প্রদেশের কুশিনগর থেকে ভারতীয় বিমান বাহিনীর একটি বিশেষ হেলিকপ্টারে করে নেপালে পৌঁছান। লুম্বিনিতে পৌঁছানোর পর ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানানো হয়। নেপালের প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দেউবা, তার স্ত্রী আরজু দেউবা এবং নেপালের একাধিক মন্ত্রী তাকে স্বাগত জানান।

ভারতীয় পররাষ্ট্র দপ্তর জানিয়েছে, মোদীর লুম্বিনী সফরে নেপালের সাথে ছয়টি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে ভারত। সেগুলো যথাক্রমে:

১. বৌদ্ধ অধ্যয়নের জন্য ডঃ আম্বেদকর চেয়ার প্রতিষ্ঠার বিষয়ে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ কালচারাল রিলেশন্স (আইসিসিআর) এবং লুম্বিনি বৌদ্ধ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সমঝোতা স্মারক

২. ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ কালচারাল রিলেশন্স (আইসিসিআর) এবং সিএনএএস, ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে আইসিসিআর চেয়ার অফ ইন্ডিয়ান স্টাডিজ প্রতিষ্ঠার বিষয়ে সমঝোতা স্মারক

৩. ইন্ডিয়ান স্টাডিজের আইসিসিআর চেয়ার প্রতিষ্ঠার বিষয়ে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ কালচারাল রিলেশন্স (আইসিসিআর) এবং কাঠমান্ডু ইউনিভার্সিটি (কেইউ) এর মধ্যে সমঝোতা স্মারক

৪. কাঠমান্ডু বিশ্ববিদ্যালয় (কেইউ), নেপাল এবং ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি মাদ্রাজ (আইআইটি-এম), ভারতের মধ্যে সমঝোতা স্মারক

৫. কাঠমান্ডু বিশ্ববিদ্যালয় (কেইউ), নেপাল এবং ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি (আইআইটি-এম), ভারতের মধ্যে চুক্তি পত্র [মাস্টার্স লেভেলে জয়েন্ট ডিগ্রি প্রোগ্রামের জন্য]

৬. অরুণ ৪ প্রকল্পের উন্নয়ন ও বাস্তবায়নের জন্য এসজেভিএন লিমিটেড এবং নেপাল ইলেকট্রিসিটি অথরিটির (এনইএ) মধ্যে চুক্তি

উল্লেখ্য, ২০১৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত নেপালে পাঁচবার সফর করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সফরকালে তিনি লুম্বিনি ডেভেলপমেন্ট ট্রাস্ট আয়োজিত বুদ্ধ জয়ন্তী অনুষ্ঠানে ভাষণ দেবেন বলে জানা গেছে।

এই সফরে বিভিন্ন ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা প্রসারিত করার জন্য আলোচনা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও নেপালি প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দেউবা। জানা গেছে, জলবিদ্যুৎসহ আরও বেশ কয়েকটি উন্নয়নমূলক ইস্যুতে আলোচনা করবেন তারা। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক