০২:১০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতের অগ্রগতির গতি ঠিক করবে ‘কানেক্টিভিটি’: মোদী

ভারতে ফাইভ-জি টেস্ট বেডের সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ ১৭ মে, মঙ্গলবার, টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া বা ট্রাই-এর ২৫ বছর উদযাপনে ফাইভ-জি পরিষেবার পরীক্ষামূলক উদ্বোধন করেন মোদী৷ আইআইটি মাদ্রাজের নেতৃত্বে দেশের আটিটি প্রতিষ্ঠান এই প্রজেক্ট তৈরি করেছে৷

এই অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী৷ ট্রাই-এর সিলভার জুবিলি উদযাপন উপলক্ষ্যে একটি পোস্টাল স্ট্যাম্পও প্রকাশ করেন তিনি ৷ এদিন মোদি বলেন, “দেশের অর্থনীতিতে ফাইভ-জি’র অবদান ৪৫ হাজার কোটি বিলিয়ন মার্কিন ডলার হতে পারে৷ এতে ইন্টারনেটের গতিই শুধু বাড়বে না, উন্নয়নও হবে৷ এই দশকের শেষে আমরা সিক্স-জি পরিষেবা চালু করতে পারব৷ আমাদের টাস্ক ফোর্স এর কাজ শুরু করে দিয়েছে।”

আইআইটি মাদ্রাজ ছাড়াও আইআইটি দিল্লি, আইআইটি হায়দরাবাদ, আইআইটি বম্বে, আইআইটি কানপুর, আইআইএসসি ব্যাঙ্গালোর, সোসাইটি ফর অ্যাপ্লায়েড মাইক্রোওয়েভ ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড রিসার্চ এবং সেন্টার অফ এক্সিলেন্স ইন ওয়ারলেস টেকনোলজি এই প্রজেক্ট তৈরিতে অংশ নিয়েছে৷

প্রধানমন্ত্রীর অফিস মারফত জানা গিয়েছে, এই প্রজেক্ট তৈরিতে ২২০ কোটি টাকারও বেশি অর্থ খরচ হয়েছে৷ এই টেস্ট বেড ভারতীয় শিল্প এবং স্টার্টআপগুলোর সহায়ক ইকোসিস্টেম হিসেবে কাজ করবে৷ টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া অ্যাক্ট, ১৯৯৭-এর মাধ্যমে ১৯৯৭ সালে ট্রাই-এর প্রতিষ্ঠা হয়েছিল৷ খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

ভারতের অগ্রগতির গতি ঠিক করবে ‘কানেক্টিভিটি’: মোদী

প্রকাশ: ০৪:১৫:২২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২

ভারতে ফাইভ-জি টেস্ট বেডের সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ ১৭ মে, মঙ্গলবার, টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া বা ট্রাই-এর ২৫ বছর উদযাপনে ফাইভ-জি পরিষেবার পরীক্ষামূলক উদ্বোধন করেন মোদী৷ আইআইটি মাদ্রাজের নেতৃত্বে দেশের আটিটি প্রতিষ্ঠান এই প্রজেক্ট তৈরি করেছে৷

এই অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী৷ ট্রাই-এর সিলভার জুবিলি উদযাপন উপলক্ষ্যে একটি পোস্টাল স্ট্যাম্পও প্রকাশ করেন তিনি ৷ এদিন মোদি বলেন, “দেশের অর্থনীতিতে ফাইভ-জি’র অবদান ৪৫ হাজার কোটি বিলিয়ন মার্কিন ডলার হতে পারে৷ এতে ইন্টারনেটের গতিই শুধু বাড়বে না, উন্নয়নও হবে৷ এই দশকের শেষে আমরা সিক্স-জি পরিষেবা চালু করতে পারব৷ আমাদের টাস্ক ফোর্স এর কাজ শুরু করে দিয়েছে।”

আইআইটি মাদ্রাজ ছাড়াও আইআইটি দিল্লি, আইআইটি হায়দরাবাদ, আইআইটি বম্বে, আইআইটি কানপুর, আইআইএসসি ব্যাঙ্গালোর, সোসাইটি ফর অ্যাপ্লায়েড মাইক্রোওয়েভ ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড রিসার্চ এবং সেন্টার অফ এক্সিলেন্স ইন ওয়ারলেস টেকনোলজি এই প্রজেক্ট তৈরিতে অংশ নিয়েছে৷

প্রধানমন্ত্রীর অফিস মারফত জানা গিয়েছে, এই প্রজেক্ট তৈরিতে ২২০ কোটি টাকারও বেশি অর্থ খরচ হয়েছে৷ এই টেস্ট বেড ভারতীয় শিল্প এবং স্টার্টআপগুলোর সহায়ক ইকোসিস্টেম হিসেবে কাজ করবে৷ টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া অ্যাক্ট, ১৯৯৭-এর মাধ্যমে ১৯৯৭ সালে ট্রাই-এর প্রতিষ্ঠা হয়েছিল৷ খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক