০১:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দীপাবলির আগেই হতে পারে ব্রিটিশ-ভারত এফটিএ

ভারত এবং ব্রিটেনের সম্ভাব্য মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হলে তা দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও আর্থিক সম্পর্কের গতিশীলতায় এক নতুন মাত্রা যোগ করবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন ভারতের কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। একইসাথে, আগামী দীপাবলির পূর্বেই ব্রিটিশ-ভারত এফটিএ চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার বিষয়ে গভীর আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

গত ২৭ মে, শুক্রবার, যুক্তরাজ্য সফরকালে লন্ডনে আয়োজিত এফটিএ সংক্রান্ত ভারত-ইউকে বিজনেস রাউন্ড টেবিল বৈঠকে এসব কথা বলেন তিনি। পরবর্তীতে এক টুইট বার্তায় প্রোগ্রামের বিষয়ে আদ্যোপান্ত জানান গোয়েল নিজেই।

বৈঠকে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বেশ কয়েকজন সাংসদ এবং মন্ত্রীর সঙ্গে অংশ নেন গোয়েল। মোদী মন্ত্রীসভার প্রভাবশালী এই সদস্য বলেন, “আমি আত্মবিশ্বাসী যে ভারত-ইউকে এফটিএ ব্যবসায়ীদের উপকৃত করবে এবং আমাদের বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সম্পর্কের গতিশীলতার একটি নতুন মাত্রা যোগ করবে।”

গোয়েল বলেন, “লন্ডনে সংসদ সদস্যদের সাথে প্রাতঃরাশের মুহূর্তে বাণিজ্য এবং বিনিয়োগের আলোচনা পরিবেশন করা হয়েছে। অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এটি। ভারত-ইউকে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি আলোচনার অগ্রগতি কীভাবে উভয় পক্ষের ব্যবসা এবং লোকেদের জন্য একটি দুর্দান্ত দীপাবলি উপহারের সম্ভাবনাকে উজ্জ্বল করেছে তা সবাইকে জানানো হয়েছে।”

জানা গিয়েছে, লন্ডনে বিভিন্ন ফিনটেক, ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ফান্ড এবং ব্যাঙ্ক সহ বিনিয়োগকারীদের দৃষ্টি আকর্ষণে সর্বাত্মক চেষ্টা করছেন গোয়েল। উক্ত বিনিয়োগকারীদের সাথে আলোচনাকালে তিনি ব্যাখ্যা করছেন যে কীভাবে ‘মেক ইন ইন্ডিয়া ফর দ্য ওয়ার্ল্ড’-এর মাধ্যমে ইউকে ব্যবসাসমূহ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য খরচের প্রতিযোগিতা, স্কেল এবং দক্ষতা লাভ করতে পারে।

এর আগে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের জন্য যুক্তরাজ্যের সচিব অ্যান-মেরি ট্রেভেলিয়ানের সাথে একটি দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন গোয়েল এবং চলমান এফটিএ আলোচনা নিয়ে সেসময়ও আলোচনা করেছিলেন। উভয় মন্ত্রী এই বছর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব একটি বিস্তৃত ভারত-ইউকে এফটিএ শেষ করার প্রতিশ্রুতি পুনর্নবীকরণ করেছেন। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

দীপাবলির আগেই হতে পারে ব্রিটিশ-ভারত এফটিএ

প্রকাশ: ০৫:৩৫:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৮ মে ২০২২

ভারত এবং ব্রিটেনের সম্ভাব্য মুক্ত বাণিজ্য চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হলে তা দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও আর্থিক সম্পর্কের গতিশীলতায় এক নতুন মাত্রা যোগ করবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন ভারতের কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। একইসাথে, আগামী দীপাবলির পূর্বেই ব্রিটিশ-ভারত এফটিএ চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার বিষয়ে গভীর আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

গত ২৭ মে, শুক্রবার, যুক্তরাজ্য সফরকালে লন্ডনে আয়োজিত এফটিএ সংক্রান্ত ভারত-ইউকে বিজনেস রাউন্ড টেবিল বৈঠকে এসব কথা বলেন তিনি। পরবর্তীতে এক টুইট বার্তায় প্রোগ্রামের বিষয়ে আদ্যোপান্ত জানান গোয়েল নিজেই।

বৈঠকে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বেশ কয়েকজন সাংসদ এবং মন্ত্রীর সঙ্গে অংশ নেন গোয়েল। মোদী মন্ত্রীসভার প্রভাবশালী এই সদস্য বলেন, “আমি আত্মবিশ্বাসী যে ভারত-ইউকে এফটিএ ব্যবসায়ীদের উপকৃত করবে এবং আমাদের বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সম্পর্কের গতিশীলতার একটি নতুন মাত্রা যোগ করবে।”

গোয়েল বলেন, “লন্ডনে সংসদ সদস্যদের সাথে প্রাতঃরাশের মুহূর্তে বাণিজ্য এবং বিনিয়োগের আলোচনা পরিবেশন করা হয়েছে। অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এটি। ভারত-ইউকে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি আলোচনার অগ্রগতি কীভাবে উভয় পক্ষের ব্যবসা এবং লোকেদের জন্য একটি দুর্দান্ত দীপাবলি উপহারের সম্ভাবনাকে উজ্জ্বল করেছে তা সবাইকে জানানো হয়েছে।”

জানা গিয়েছে, লন্ডনে বিভিন্ন ফিনটেক, ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ফান্ড এবং ব্যাঙ্ক সহ বিনিয়োগকারীদের দৃষ্টি আকর্ষণে সর্বাত্মক চেষ্টা করছেন গোয়েল। উক্ত বিনিয়োগকারীদের সাথে আলোচনাকালে তিনি ব্যাখ্যা করছেন যে কীভাবে ‘মেক ইন ইন্ডিয়া ফর দ্য ওয়ার্ল্ড’-এর মাধ্যমে ইউকে ব্যবসাসমূহ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য খরচের প্রতিযোগিতা, স্কেল এবং দক্ষতা লাভ করতে পারে।

এর আগে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের জন্য যুক্তরাজ্যের সচিব অ্যান-মেরি ট্রেভেলিয়ানের সাথে একটি দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন গোয়েল এবং চলমান এফটিএ আলোচনা নিয়ে সেসময়ও আলোচনা করেছিলেন। উভয় মন্ত্রী এই বছর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব একটি বিস্তৃত ভারত-ইউকে এফটিএ শেষ করার প্রতিশ্রুতি পুনর্নবীকরণ করেছেন। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক