০১:০৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভারত-ইরান সংলাপে আঞ্চলিক সংযোগ

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর সফররত ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আবদুল্লাহিয়ানের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। বুধবার এই বৈঠকে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়ন, আফগানিস্তান পরিস্থিতি এবং ইউক্রেন সংকট পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

মহানবী (সাঃ) -কে নিয়ে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির দুই মুখপাত্রের বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে পশ্চিম এশিয়া জুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে। এর মধ্যেই অনুষ্ঠিত হয়েছে ইরান ও ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক।

এক টুইট বার্তায় এস জয়শঙ্কর লিখেছেন, “ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির-আবদুল্লাহিয়ানের সঙ্গে ব্যাপক আলোচনা হয়েছে। বাণিজ্য, কানেক্টিভিটি, স্বাস্থ্য এবং মানুষে মানুষে সম্পর্কসহ দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা পর্যালোচনা করা হয়েছে। জেসিপিওএ, আফগানিস্তান এবং ইউক্রেনসহ বৈশ্বিক এবং আঞ্চলিক ইস্যুতেও মতবিনিময় হয়েছে।”

উভয় পক্ষ বাণিজ্যিক এবং বেসামরিক আইনি সহায়তা নিয়ে পারস্পারিক চুক্তি সই করেছে। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নে ভারতে তিন দিনের সফর শুরু করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। মহানবী (সাঃ) কে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের পর উপসাগরীয় দেশগুলোতে তীব্র প্রতিক্রিয়ার পর এই প্রথমবারের মতো অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশনের (ওআইসি) সদস্য রাষ্ট্রের কোনও সিনিয়র মন্ত্রী ভারত সফর করছেন।

এছাড়া, প্রধানমন্ত্রী মোদী এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সাথেও সাক্ষাৎ করেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তাঁকে স্বাগত জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদী ভারত ও ইরানের মধ্যে দীর্ঘস্থায়ী সভ্যতাগত ও সাংস্কৃতিক সম্পর্ককে উষ্ণভাবে স্মরণ করেন। তথ্যটি নিশ্চিত করে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।

বুধবার রাতের ওই সাক্ষাতের পর আবদুল্লাহিয়ান টুইট করেন, “প্রধানমন্ত্রী মোদী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্কর এবং ভারতীয় অন্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় কৌশলগত আলোচনায় অগ্রগতিতে সন্তুষ্ট। তেহরান এবং নয়া দিল্লি ইসলামের পবিত্রতা রক্ষায় ও বিভক্তি এড়াতে একমত হয়েছে।”

ভারত সফরের আগে তেহরানে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে তলব করে বিজেপি মুখপাত্রদের মন্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া জানায় ইরান। নূপুর শর্মা এবং নবীন জিন্দাল নামের ওই দুই মুখপাত্রকে বহিষ্কার করেছে বিজেপি। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

ভারত-ইরান সংলাপে আঞ্চলিক সংযোগ

প্রকাশ: ০৮:২৯:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ জুন ২০২২

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর সফররত ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আবদুল্লাহিয়ানের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। বুধবার এই বৈঠকে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়ন, আফগানিস্তান পরিস্থিতি এবং ইউক্রেন সংকট পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

মহানবী (সাঃ) -কে নিয়ে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির দুই মুখপাত্রের বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে পশ্চিম এশিয়া জুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে। এর মধ্যেই অনুষ্ঠিত হয়েছে ইরান ও ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক।

এক টুইট বার্তায় এস জয়শঙ্কর লিখেছেন, “ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির-আবদুল্লাহিয়ানের সঙ্গে ব্যাপক আলোচনা হয়েছে। বাণিজ্য, কানেক্টিভিটি, স্বাস্থ্য এবং মানুষে মানুষে সম্পর্কসহ দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা পর্যালোচনা করা হয়েছে। জেসিপিওএ, আফগানিস্তান এবং ইউক্রেনসহ বৈশ্বিক এবং আঞ্চলিক ইস্যুতেও মতবিনিময় হয়েছে।”

উভয় পক্ষ বাণিজ্যিক এবং বেসামরিক আইনি সহায়তা নিয়ে পারস্পারিক চুক্তি সই করেছে। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নে ভারতে তিন দিনের সফর শুরু করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। মহানবী (সাঃ) কে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের পর উপসাগরীয় দেশগুলোতে তীব্র প্রতিক্রিয়ার পর এই প্রথমবারের মতো অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশনের (ওআইসি) সদস্য রাষ্ট্রের কোনও সিনিয়র মন্ত্রী ভারত সফর করছেন।

এছাড়া, প্রধানমন্ত্রী মোদী এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সাথেও সাক্ষাৎ করেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তাঁকে স্বাগত জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদী ভারত ও ইরানের মধ্যে দীর্ঘস্থায়ী সভ্যতাগত ও সাংস্কৃতিক সম্পর্ককে উষ্ণভাবে স্মরণ করেন। তথ্যটি নিশ্চিত করে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।

বুধবার রাতের ওই সাক্ষাতের পর আবদুল্লাহিয়ান টুইট করেন, “প্রধানমন্ত্রী মোদী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্কর এবং ভারতীয় অন্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় কৌশলগত আলোচনায় অগ্রগতিতে সন্তুষ্ট। তেহরান এবং নয়া দিল্লি ইসলামের পবিত্রতা রক্ষায় ও বিভক্তি এড়াতে একমত হয়েছে।”

ভারত সফরের আগে তেহরানে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে তলব করে বিজেপি মুখপাত্রদের মন্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া জানায় ইরান। নূপুর শর্মা এবং নবীন জিন্দাল নামের ওই দুই মুখপাত্রকে বহিষ্কার করেছে বিজেপি। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক