০২:০৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মঙ্গোলিয়ায় প্রদর্শনীর জন্য বুদ্ধ নিদর্শন পাঠিয়েছে ভারত

মঙ্গোলিয়ায় গৌতম বুদ্ধের পবিত্র নিদর্শন পাঠিয়েছে ভারত। মঙ্গোলিয়ান বুদ্ধ পূর্ণিমা উৎসবের অংশ হিসাবে ১১ দিনের জন্য বুদ্ধের চারটি পবিত্র অবশেষ ভারত থেকে মঙ্গোলিয়ায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ১৪ জুন থেকে মঙ্গোলিয়াতে প্রদর্শিত হবে বুদ্ধের নিদর্শন।

এর আগে, গত ১২ জুন ভারতের আইন ও বিচার মন্ত্রী কিরেন রিজিজুর নেতৃত্বে ২৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল মঙ্গোলিয়ার উদ্দেশ্যে নিদর্শন নিয়ে রওনা হয়েছিলেন। শনিবার, তথ্যটি নিশ্চিত করেছিলো ভারতের কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়।

প্রত্নবস্তুগুলো ‘কপিলবস্তু অবশেষ’, যা মূলত ভারতের নয়াদিল্লীতে জাতীয় জাদুঘরে রাখা হয়েছিলো। এগুলো বিহারের একটি স্থানের নামে নামকরণ করা হয়েছে, যা ১৮৯৮ সালে পাওয়া গিয়েছিলো এবং এটি প্রাচীন শহর কপিলবস্তুকে প্রতিনিধিত্ব করে বলে মনে করা হয়। জানা গিয়েছে, মঙ্গোলিয়ার উলানবাটারের গন্ডান মঠের মাঠে অবস্থিত বটসাগান মন্দিরে পবিত্র প্রত্নবস্তুগুলো প্রদর্শন করা হবে।

এ সম্পর্কে এক মিডিয়াকে ব্রিফিংয়ে রিজিজু সাংবাদিকদের বলেছিলেন, “এটি ভারত-মঙ্গোলিয়া সম্পর্কের আরেকটি উল্লেখযোগ্য মাইলফলক এবং এটি দুই দেশের মধ্যে সাংস্কৃতিক ও আধ্যাত্মিক সম্পর্ককে শক্তিশালী করবে। ভারত শান্তি ও সম্প্রীতিতে বিশ্বাস করে এবং ভগবান বুদ্ধের শিক্ষা বিশ্বের কাছে ভারতের সাংস্কৃতিক উপহার।”

এর আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২০১৫ সালে মঙ্গোলিয়া সফরকারী ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

মঙ্গোলিয়ায় প্রদর্শনীর জন্য বুদ্ধ নিদর্শন পাঠিয়েছে ভারত

প্রকাশ: ০৯:১৩:০৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ জুন ২০২২

মঙ্গোলিয়ায় গৌতম বুদ্ধের পবিত্র নিদর্শন পাঠিয়েছে ভারত। মঙ্গোলিয়ান বুদ্ধ পূর্ণিমা উৎসবের অংশ হিসাবে ১১ দিনের জন্য বুদ্ধের চারটি পবিত্র অবশেষ ভারত থেকে মঙ্গোলিয়ায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ১৪ জুন থেকে মঙ্গোলিয়াতে প্রদর্শিত হবে বুদ্ধের নিদর্শন।

এর আগে, গত ১২ জুন ভারতের আইন ও বিচার মন্ত্রী কিরেন রিজিজুর নেতৃত্বে ২৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল মঙ্গোলিয়ার উদ্দেশ্যে নিদর্শন নিয়ে রওনা হয়েছিলেন। শনিবার, তথ্যটি নিশ্চিত করেছিলো ভারতের কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়।

প্রত্নবস্তুগুলো ‘কপিলবস্তু অবশেষ’, যা মূলত ভারতের নয়াদিল্লীতে জাতীয় জাদুঘরে রাখা হয়েছিলো। এগুলো বিহারের একটি স্থানের নামে নামকরণ করা হয়েছে, যা ১৮৯৮ সালে পাওয়া গিয়েছিলো এবং এটি প্রাচীন শহর কপিলবস্তুকে প্রতিনিধিত্ব করে বলে মনে করা হয়। জানা গিয়েছে, মঙ্গোলিয়ার উলানবাটারের গন্ডান মঠের মাঠে অবস্থিত বটসাগান মন্দিরে পবিত্র প্রত্নবস্তুগুলো প্রদর্শন করা হবে।

এ সম্পর্কে এক মিডিয়াকে ব্রিফিংয়ে রিজিজু সাংবাদিকদের বলেছিলেন, “এটি ভারত-মঙ্গোলিয়া সম্পর্কের আরেকটি উল্লেখযোগ্য মাইলফলক এবং এটি দুই দেশের মধ্যে সাংস্কৃতিক ও আধ্যাত্মিক সম্পর্ককে শক্তিশালী করবে। ভারত শান্তি ও সম্প্রীতিতে বিশ্বাস করে এবং ভগবান বুদ্ধের শিক্ষা বিশ্বের কাছে ভারতের সাংস্কৃতিক উপহার।”

এর আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২০১৫ সালে মঙ্গোলিয়া সফরকারী ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক