১০:৫৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইউএসএআইডি প্রধানের সাথে বৈঠকে জয়শঙ্কর

মার্কিন দাতা সংস্থা ইউএসএআইডির প্রধান সামান্থা পাওয়ারের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। মঙ্গলবার, নয়াদিল্লীতে এক বৈঠকে বিশ্বের বিভিন্ন অংশে চলমান খাদ্য ও নিরাপত্তা চ্যালেঞ্জ ছাড়াও শ্রীলঙ্কার বিদ্যমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন উভয় পক্ষ।

এসময়, পরিচ্ছন্ন শক্তি সহ দ্বিপাক্ষিক অংশীদারিত্বের সার্বিক খাতে ভারত-মার্কিন সম্পর্ক আরও সম্প্রসারিত করার বিষয়ে মতবিনিময় করেন উভয় নেতা। পরবর্তীতে এক টুইটবার্তায় জয়শঙ্কর বলেন, “আজকে ইউএসএআইডি প্রশাসক সামান্থা পাওয়ারের সাথে সাক্ষাৎ করে আনন্দিত। খাদ্য, শক্তি এবং ঋণ চ্যালেঞ্জের প্রেক্ষাপটে বৈশ্বিক উন্নয়ন সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করেছি। এছাড়াও ভারত-মার্কিন অংশীদারিত্বকে আরও প্রসারিত করার বিষয়ে মতামত বিনিময় করেছি আমরা।”

বৈঠকের পর একটি টুইট করেন সামান্থা নিজেও। তিনি লিখেছেন, “শ্রীলঙ্কা, বৈশ্বিক খাদ্য নিরাপত্তাহীনতা এবং জলবায়ুর প্রভাব নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সাথে দারুণ আলোচনা হয়েছে। এই সপ্তাহটি গত ০৬ মাসে নয়াদিল্লির সবচেয়ে ভেজা, উষ্ণতম এবং শীতল সপ্তাহ ছিল। আমরা দারুণ সম্পর্ক গড়তে আগ্রহী।”

উল্লেখ্য, ইউএসএআইডি বিশ্বের অন্যতম প্রধান দাতব্য সংস্থা। এর প্রধান হিসেবে গত জানুয়ারী মাসে সামান্থাকে নিয়োগ দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। দীর্ঘদিন ধরে মানবাধিকার নিয়ে কাজ করছেন ৫০ বছর বয়সী সামান্থা।

২০১৩ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সরকারের অধীনে জাতিসংঘের মার্কিন দূত হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। ২০০৯ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত ওবামার শাসনামলে হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা কর্মী হিসেবেও নিয়োজিত ছিলেন তিনি। নিজের লেখা বই ‘অ্যা প্রবলেম ফ্রম হেল’ এর জন্য পুলিৎজার পুরস্কারও জিতেছেন সাবেক এ সাংবাদিক। একটি গণহত্যা ঠেকাতে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যর্থতা সংক্রান্ত একটি গবেষণাধর্মী বই এটি। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

ইউএসএআইডি প্রধানের সাথে বৈঠকে জয়শঙ্কর

প্রকাশ: ০২:০৭:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ জুলাই ২০২২

মার্কিন দাতা সংস্থা ইউএসএআইডির প্রধান সামান্থা পাওয়ারের সাথে সাক্ষাৎ করেছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। মঙ্গলবার, নয়াদিল্লীতে এক বৈঠকে বিশ্বের বিভিন্ন অংশে চলমান খাদ্য ও নিরাপত্তা চ্যালেঞ্জ ছাড়াও শ্রীলঙ্কার বিদ্যমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন উভয় পক্ষ।

এসময়, পরিচ্ছন্ন শক্তি সহ দ্বিপাক্ষিক অংশীদারিত্বের সার্বিক খাতে ভারত-মার্কিন সম্পর্ক আরও সম্প্রসারিত করার বিষয়ে মতবিনিময় করেন উভয় নেতা। পরবর্তীতে এক টুইটবার্তায় জয়শঙ্কর বলেন, “আজকে ইউএসএআইডি প্রশাসক সামান্থা পাওয়ারের সাথে সাক্ষাৎ করে আনন্দিত। খাদ্য, শক্তি এবং ঋণ চ্যালেঞ্জের প্রেক্ষাপটে বৈশ্বিক উন্নয়ন সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা করেছি। এছাড়াও ভারত-মার্কিন অংশীদারিত্বকে আরও প্রসারিত করার বিষয়ে মতামত বিনিময় করেছি আমরা।”

বৈঠকের পর একটি টুইট করেন সামান্থা নিজেও। তিনি লিখেছেন, “শ্রীলঙ্কা, বৈশ্বিক খাদ্য নিরাপত্তাহীনতা এবং জলবায়ুর প্রভাব নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সাথে দারুণ আলোচনা হয়েছে। এই সপ্তাহটি গত ০৬ মাসে নয়াদিল্লির সবচেয়ে ভেজা, উষ্ণতম এবং শীতল সপ্তাহ ছিল। আমরা দারুণ সম্পর্ক গড়তে আগ্রহী।”

উল্লেখ্য, ইউএসএআইডি বিশ্বের অন্যতম প্রধান দাতব্য সংস্থা। এর প্রধান হিসেবে গত জানুয়ারী মাসে সামান্থাকে নিয়োগ দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। দীর্ঘদিন ধরে মানবাধিকার নিয়ে কাজ করছেন ৫০ বছর বয়সী সামান্থা।

২০১৩ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সরকারের অধীনে জাতিসংঘের মার্কিন দূত হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। ২০০৯ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত ওবামার শাসনামলে হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা কর্মী হিসেবেও নিয়োজিত ছিলেন তিনি। নিজের লেখা বই ‘অ্যা প্রবলেম ফ্রম হেল’ এর জন্য পুলিৎজার পুরস্কারও জিতেছেন সাবেক এ সাংবাদিক। একটি গণহত্যা ঠেকাতে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যর্থতা সংক্রান্ত একটি গবেষণাধর্মী বই এটি। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক