০১:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কানাডার ভগবত গীতা পার্কে হামলার নিন্দা ভারতের

সম্প্রতি কানাডার ব্রাম্পটন শহরে উদ্বোধন করা হয়েছিল ‘শ্রী ভগবত গীতা পার্কের। সেখানে একটি সাইনবোর্ডে লেখা ছিল পার্কের নতুন এই নামটি। তবে সেই সাইনবোর্ড থেকেই ‘শ্রী ভগবত গীতা পার্কের নাম মুছে ফেলা হয়। ১ অক্টোবর এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে। ঘটনার প্রেক্ষিতে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন ব্রাম্পটনের মেয়র প্যাট্রিক ব্রাউন। এদিকে ঘটনার নিন্দায় সরব হয়েছে ভারত।

কানাডায় ভারতের দূতাবাসের তরফে এই ঘটনার প্রেক্ষিতে টুইট করে লেখা হয়েছে, ‘ব্রাম্পটনের শ্রী ভগবত গীতা পার্কে ঘৃণ্য অপরাধের নিন্দা জানাই আমরা। আমরা কানাডিয়ান কর্তৃপক্ষ এবং পিল পুলিশকে তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানাই।’

এদিকে ব্রাম্পটনের মেয়রও এই ঘটনার নিন্দা জানান। তিনি বলেন, ‘এই ধরনের ঘটনা আমরা কোনোভাবে মেনে নেব না।’ এর আগে পার্কটির নয়া সাইনবোর্ড ২৮ সেপ্টেম্বর উন্মোচন করা হয়েছিল। এটি আগে ট্রয়ার্স পার্ক নামে এটি পরিচিত ছিল। বর্তমানে এটি ‘শ্রী ভগবত গীতা পার্ক’ নামে নামাঙ্কিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, কানাডার গ্রেটার টরন্টো এলাকায় বহু মন্দিরে ভাঙচুর ও লুটপাটে করার ঘটনা ঘটেছিল। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ১০ দিনের মধ্যে ৬টি মন্দিরে ভাঙচুর ও চুরির ঘটনা ঘটে। ব্রাম্পটনের গৌরী শঙ্কর মন্দির, জগন্নাথ মন্দির, মিসিসাগার হিন্দু হেরিটেজ সেন্টারে এই ধরনের ভাঙচুর চালানো হয়।

তাছাড়া শ্রী হনুমান মন্দির, মা চিন্তাপূর্ণি মন্দির, হ্যামিল্টন সমাজ মন্দিরেও ভাঙচুর হয়েছিল। এই মন্দিরগুলোর দান বাক্স ভেঙে নগদ টাকা চুরি করা হয়েছিল। প্রতিমার শরীরে থাকা অলঙ্কারও চুরি করা হয়েছিল। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

কানাডার ভগবত গীতা পার্কে হামলার নিন্দা ভারতের

প্রকাশ: ১২:৫৬:১৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২

সম্প্রতি কানাডার ব্রাম্পটন শহরে উদ্বোধন করা হয়েছিল ‘শ্রী ভগবত গীতা পার্কের। সেখানে একটি সাইনবোর্ডে লেখা ছিল পার্কের নতুন এই নামটি। তবে সেই সাইনবোর্ড থেকেই ‘শ্রী ভগবত গীতা পার্কের নাম মুছে ফেলা হয়। ১ অক্টোবর এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে। ঘটনার প্রেক্ষিতে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন ব্রাম্পটনের মেয়র প্যাট্রিক ব্রাউন। এদিকে ঘটনার নিন্দায় সরব হয়েছে ভারত।

কানাডায় ভারতের দূতাবাসের তরফে এই ঘটনার প্রেক্ষিতে টুইট করে লেখা হয়েছে, ‘ব্রাম্পটনের শ্রী ভগবত গীতা পার্কে ঘৃণ্য অপরাধের নিন্দা জানাই আমরা। আমরা কানাডিয়ান কর্তৃপক্ষ এবং পিল পুলিশকে তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানাই।’

এদিকে ব্রাম্পটনের মেয়রও এই ঘটনার নিন্দা জানান। তিনি বলেন, ‘এই ধরনের ঘটনা আমরা কোনোভাবে মেনে নেব না।’ এর আগে পার্কটির নয়া সাইনবোর্ড ২৮ সেপ্টেম্বর উন্মোচন করা হয়েছিল। এটি আগে ট্রয়ার্স পার্ক নামে এটি পরিচিত ছিল। বর্তমানে এটি ‘শ্রী ভগবত গীতা পার্ক’ নামে নামাঙ্কিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, কানাডার গ্রেটার টরন্টো এলাকায় বহু মন্দিরে ভাঙচুর ও লুটপাটে করার ঘটনা ঘটেছিল। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ১০ দিনের মধ্যে ৬টি মন্দিরে ভাঙচুর ও চুরির ঘটনা ঘটে। ব্রাম্পটনের গৌরী শঙ্কর মন্দির, জগন্নাথ মন্দির, মিসিসাগার হিন্দু হেরিটেজ সেন্টারে এই ধরনের ভাঙচুর চালানো হয়।

তাছাড়া শ্রী হনুমান মন্দির, মা চিন্তাপূর্ণি মন্দির, হ্যামিল্টন সমাজ মন্দিরেও ভাঙচুর হয়েছিল। এই মন্দিরগুলোর দান বাক্স ভেঙে নগদ টাকা চুরি করা হয়েছিল। প্রতিমার শরীরে থাকা অলঙ্কারও চুরি করা হয়েছিল। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক