০৯:০৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শীঘ্রই এফটিএ চায় ভারত-যুক্তরাজ্য

ভারত এবং যুক্তরাজ্য নিজেদের মধ্যকার মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি (এফটিএ) আলোচনা শীঘ্রই শেষ করতে আগ্রহী এবং উভয় রাষ্ট্রই সর্বোচ্চ আউটপুট বের করতে নিবিড় পর্যালোচনা চালিয়ে যাচ্ছে। শুক্রবার এক বিবৃতিতে এমনটিই জানিয়েছে ভারতের পররাষ্ট্র দপ্তর।

সাপ্তাহিক মিডিয়া ব্রিফিংয়ে ভারত এবং যুক্তরাজ্য এফটিএ আলোচনার স্থিতি সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচী বলেন, “উভয় পক্ষেরই আগ্রহ রয়েছে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এফটিএ শেষ করা। আপনাদের স্মরণে থাকার কথা, দীপাবলির পূর্বেই আলোচনা শেষ করার একটি লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছিল। আমার ধারণা, এ বিষয়ে নিবিড় আলোচনা হচ্ছে, যা এখনও চলছে।”

তিনি আরও বলেন, “সমস্ত আলোচনাই দেওয়া এবং নেওয়ার একটি অংশ। এটি উভয় পক্ষের জন্য জয়-জয় পরিস্থিতি হওয়া দরকার।”

উল্লেখ্য, গত বছরের ৪মে ভারত ও যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে এনহ্যান্সড ট্রেড পার্টনারশিপ চালু করা হয়েছিলো, যাতে ২০৩০ সালের মধ্যে নিজেদের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও সম্পর্ক দ্বিগুণ করার প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়। এরপরই মূলত, চলতি বছরের ১৩ জানুয়ারী মুক্ত বাণিজ্য চুক্তির জন্য আলোচনা শুরু হয়। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

শীঘ্রই এফটিএ চায় ভারত-যুক্তরাজ্য

প্রকাশ: ০৩:১৬:৫৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ অক্টোবর ২০২২

ভারত এবং যুক্তরাজ্য নিজেদের মধ্যকার মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি (এফটিএ) আলোচনা শীঘ্রই শেষ করতে আগ্রহী এবং উভয় রাষ্ট্রই সর্বোচ্চ আউটপুট বের করতে নিবিড় পর্যালোচনা চালিয়ে যাচ্ছে। শুক্রবার এক বিবৃতিতে এমনটিই জানিয়েছে ভারতের পররাষ্ট্র দপ্তর।

সাপ্তাহিক মিডিয়া ব্রিফিংয়ে ভারত এবং যুক্তরাজ্য এফটিএ আলোচনার স্থিতি সম্পর্কিত এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচী বলেন, “উভয় পক্ষেরই আগ্রহ রয়েছে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এফটিএ শেষ করা। আপনাদের স্মরণে থাকার কথা, দীপাবলির পূর্বেই আলোচনা শেষ করার একটি লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছিল। আমার ধারণা, এ বিষয়ে নিবিড় আলোচনা হচ্ছে, যা এখনও চলছে।”

তিনি আরও বলেন, “সমস্ত আলোচনাই দেওয়া এবং নেওয়ার একটি অংশ। এটি উভয় পক্ষের জন্য জয়-জয় পরিস্থিতি হওয়া দরকার।”

উল্লেখ্য, গত বছরের ৪মে ভারত ও যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে এনহ্যান্সড ট্রেড পার্টনারশিপ চালু করা হয়েছিলো, যাতে ২০৩০ সালের মধ্যে নিজেদের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও সম্পর্ক দ্বিগুণ করার প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়। এরপরই মূলত, চলতি বছরের ১৩ জানুয়ারী মুক্ত বাণিজ্য চুক্তির জন্য আলোচনা শুরু হয়। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক