০২:১০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পাকিস্তানকে নিজ ঘর সাজানোর পরামর্শ ভারতের

সম্প্রতি কনফারেন্স অন ইন্টারঅ্যাকশন অ্যান্ড কনফিডেন্স বিল্ডিং মেজারস ইন এশিয়া (সিআইসিএ) এর ষষ্ঠ শীর্ষ সম্মেলনে কাশ্মীর ইস্যু উত্থাপন করেছে পাকিস্তান। এ নিয়েই একই প্ল্যাটফর্মে পাক কর্তৃপক্ষকে তোপ দাগালেন ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মীনাক্ষী লেখি।

সিআইসিএ সম্মেলনে নিজ বক্তব্য প্রদানকালে পাকিস্তানকে অবৈধভাবে দখল করে থাকা কাশ্মীর এবং অন্যান্য অধীনস্থ ভারতীয় অঞ্চল খালি করে দেয়ার আহবান জানান লেখি। একই সাথে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সাথে আচরণের ক্ষেত্রে পাকিস্তানের ন্যাক্কারজনক রেকর্ডও তুলে ধরেন তিনি।

লেখি বলেন, “বিশ্ব মানবতা ও সম্প্রদায়কে জ্ঞান দেয়ার পূর্বে পাকিস্তানের উচিত নিজের ঘর সাজানো!” এরপরই তিনি অঙ্গীকারের সুরে বলেন, “জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলো ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ ছিল এবং থাকবে। ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে মন্তব্য করার আইনী কর্তৃত্ব পাকিস্তানের নেই।”

তিনি আরও বলেন, “পাকিস্তানকে অবিলম্বে ভারতের বিরুদ্ধে সমস্ত আন্তঃসীমান্ত সন্ত্রাস বন্ধ করতে হবে এবং সকল সন্ত্রাসী অবকাঠামো ভেঙে ফেলতে হবে। অনেক দশক ধরে আমরা পাকিস্তানের আর্থিক, রাজনৈতিক এবং নৈতিক সমর্থনের মাধ্যমে অব্যাহত আন্তঃসীমান্ত সন্ত্রাসবাদের হুমকি দ্বারা প্রভাবিত হয়েছি।”

উল্লেখ্য, সিআইসিএ হচ্ছে মূলত এশিয়ার রাষ্ট্রসমূহের একটি জোট, যেখানে পারস্পরিক আত্মবিশ্বাস ও মর্যাদার বিষয়ে কথা বলা হয়। এটি ১৯৯৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো। বর্তমানে এর সদস্য সংখ্যা ২৮ টি। এছাড়া, ৯টি দেশ ও ৫ টি সংস্থা এর পর্যবেক্ষক সদস্য। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

পাকিস্তানকে নিজ ঘর সাজানোর পরামর্শ ভারতের

প্রকাশ: ০১:৫১:০৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ অক্টোবর ২০২২

সম্প্রতি কনফারেন্স অন ইন্টারঅ্যাকশন অ্যান্ড কনফিডেন্স বিল্ডিং মেজারস ইন এশিয়া (সিআইসিএ) এর ষষ্ঠ শীর্ষ সম্মেলনে কাশ্মীর ইস্যু উত্থাপন করেছে পাকিস্তান। এ নিয়েই একই প্ল্যাটফর্মে পাক কর্তৃপক্ষকে তোপ দাগালেন ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মীনাক্ষী লেখি।

সিআইসিএ সম্মেলনে নিজ বক্তব্য প্রদানকালে পাকিস্তানকে অবৈধভাবে দখল করে থাকা কাশ্মীর এবং অন্যান্য অধীনস্থ ভারতীয় অঞ্চল খালি করে দেয়ার আহবান জানান লেখি। একই সাথে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সাথে আচরণের ক্ষেত্রে পাকিস্তানের ন্যাক্কারজনক রেকর্ডও তুলে ধরেন তিনি।

লেখি বলেন, “বিশ্ব মানবতা ও সম্প্রদায়কে জ্ঞান দেয়ার পূর্বে পাকিস্তানের উচিত নিজের ঘর সাজানো!” এরপরই তিনি অঙ্গীকারের সুরে বলেন, “জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলো ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ ছিল এবং থাকবে। ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে মন্তব্য করার আইনী কর্তৃত্ব পাকিস্তানের নেই।”

তিনি আরও বলেন, “পাকিস্তানকে অবিলম্বে ভারতের বিরুদ্ধে সমস্ত আন্তঃসীমান্ত সন্ত্রাস বন্ধ করতে হবে এবং সকল সন্ত্রাসী অবকাঠামো ভেঙে ফেলতে হবে। অনেক দশক ধরে আমরা পাকিস্তানের আর্থিক, রাজনৈতিক এবং নৈতিক সমর্থনের মাধ্যমে অব্যাহত আন্তঃসীমান্ত সন্ত্রাসবাদের হুমকি দ্বারা প্রভাবিত হয়েছি।”

উল্লেখ্য, সিআইসিএ হচ্ছে মূলত এশিয়ার রাষ্ট্রসমূহের একটি জোট, যেখানে পারস্পরিক আত্মবিশ্বাস ও মর্যাদার বিষয়ে কথা বলা হয়। এটি ১৯৯৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো। বর্তমানে এর সদস্য সংখ্যা ২৮ টি। এছাড়া, ৯টি দেশ ও ৫ টি সংস্থা এর পর্যবেক্ষক সদস্য। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক