০৯:৫৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জিপিএআই সভাপতিত্ব করবে ভারত

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিষয়ক গ্লোবাল পার্টনারশিপ- জিপিএআই এর সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব নিতে চলেছে ভারত। রবিবার, ভারতের কেন্দ্রীয় ইলেকট্রনিক্স ও আইটি মন্ত্রণালয় এক বার্তায় জানিয়েছে, জি-২০ সভাপতিত্ব গ্রহণের পরপরই জিপিএআই এর দায়িত্ব নিবে ভারত।

উল্লেখ্য, জিপিএআই হলো দায়িত্বশীল ও মানবকেন্দ্রিক উন্নয়ন এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ব্যবহারকে উৎসাহিত করার একটি আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টা। জানা গিয়েছে, ভারতের কেন্দ্রীয় ইলেকট্রনিক্স ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর আগামী ২১শে নভেম্বর টোকিওতে অনুষ্ঠিতব্য জিপিএআই সম্মেলনে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করবেন।

মন্ত্রণালয়ের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ভারত সভাপতিত্ব করবে, তা এই সত্যটিকে প্রতিফলিত করে যে, বাকি বিশ্ব ভারতকে একটি বিশ্বস্ত প্রযুক্তি অংশীদার হিসাবে দেখে, যা দীর্ঘকাল ধরে স্বীয় জনগণের জীবনকে উন্নত করতে প্রযুক্তির নৈতিক ব্যবহারকে প্রচার করেছে।

প্রসঙ্গত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, মেক্সিকো, নিউজিল্যান্ড, কোরিয়া প্রজাতন্ত্র এবং সিঙ্গাপুর সহ ২৫ টি দেশ মিলে জিপিএআই শুরু করেছিলো। ভারত ২০২০ সালে সংস্থাটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হিসাবে যোগদান করেছিল। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

জিপিএআই সভাপতিত্ব করবে ভারত

প্রকাশ: ১২:৫১:৫০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ নভেম্বর ২০২২

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বিষয়ক গ্লোবাল পার্টনারশিপ- জিপিএআই এর সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব নিতে চলেছে ভারত। রবিবার, ভারতের কেন্দ্রীয় ইলেকট্রনিক্স ও আইটি মন্ত্রণালয় এক বার্তায় জানিয়েছে, জি-২০ সভাপতিত্ব গ্রহণের পরপরই জিপিএআই এর দায়িত্ব নিবে ভারত।

উল্লেখ্য, জিপিএআই হলো দায়িত্বশীল ও মানবকেন্দ্রিক উন্নয়ন এবং কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ব্যবহারকে উৎসাহিত করার একটি আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টা। জানা গিয়েছে, ভারতের কেন্দ্রীয় ইলেকট্রনিক্স ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর আগামী ২১শে নভেম্বর টোকিওতে অনুষ্ঠিতব্য জিপিএআই সম্মেলনে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করবেন।

মন্ত্রণালয়ের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ভারত সভাপতিত্ব করবে, তা এই সত্যটিকে প্রতিফলিত করে যে, বাকি বিশ্ব ভারতকে একটি বিশ্বস্ত প্রযুক্তি অংশীদার হিসাবে দেখে, যা দীর্ঘকাল ধরে স্বীয় জনগণের জীবনকে উন্নত করতে প্রযুক্তির নৈতিক ব্যবহারকে প্রচার করেছে।

প্রসঙ্গত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, মেক্সিকো, নিউজিল্যান্ড, কোরিয়া প্রজাতন্ত্র এবং সিঙ্গাপুর সহ ২৫ টি দেশ মিলে জিপিএআই শুরু করেছিলো। ভারত ২০২০ সালে সংস্থাটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হিসাবে যোগদান করেছিল। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক