ঢাকা ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সন্ত্রাস মোকাবেলায় চাই বিশ্ব একতা: রাজনাথ

  • প্রতিনিধি
  • ইত্তেহাদ ডেস্ক ।। প্রকাশ: ০৫:০৭:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর ২০২২
  • 49

আসিয়ানের কেন্দ্রস্থলে একটি শান্তিপূর্ণ ইন্দো-প্যাসিফিক বিশ্বের নিরাপত্তা ও সমৃদ্ধির জন্য আগের চেয়ে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে বলে মনে করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। তিনি বলেন, ১০টি আসিয়ান দেশ এবং ৮টি প্রধান প্লাস দেশের অংশগ্রহণে শুধুমাত্র আঞ্চলিক নিরাপত্তার জন্যই নয়, বিশ্ব শান্তির জন্যও একটি চালক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং কম্বোডিয়ার সিয়েম রিপে নবম আসিয়ান প্রতিরক্ষা মন্ত্রীদের বৈঠকে ভাষণ দেওয়ার সময় এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, সবচেয়ে বড় হুমকি আন্তর্জাতিক ও আন্তঃসীমান্ত সন্ত্রাসবাদ থেকে। উদাসীনতা আর প্রতিক্রিয়া হতে পারে না, কারণ সন্ত্রাসবাদ বিশ্বব্যাপী শিকার তৈরি করেছে। তাই আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে জরুরী ও দৃঢ়ভাবে হস্তক্ষেপ করতে হবে।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো অর্থ স্থানান্তর এবং সমর্থকদের নিয়োগের জন্য নতুন যুগের কৌশল অবলম্বন করেছে এবং সমর্থিত মহাদেশ জুড়ে আন্তঃসংযোগ রয়েছে। সাইবার অপরাধ নতুন প্রযুক্তির ক্রমবর্ধমান ব্যবহারকেও নির্দেশ করে।

রাজনাথ সিং বলেন, রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সন্ত্রাসবিরোধী কমিটি ২৮-২৯ অক্টোবর নয়াদিল্লিতে বৈঠক করেছে এবং এই উন্নয়নগুলোকে গুরুত্ব সহকারে নোট করেছে। কমিটি সন্ত্রাসবাদী উদ্দেশ্যে নতুন এবং উদীয়মান প্রযুক্তির ব্যবহার রোধে ‘দিল্লি ঘোষণা’ গ্রহণ করেছে। সন্ত্রাসবাদ ক্রমাগত একটি বড় হুমকি হয়ে উঠলে, করোনা মহামারীর পরে উদ্ভূত অন্যান্য নিরাপত্তা উদ্বেগ উপেক্ষা করা যায় না।

মোদী মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণ এই সদস্য বলেন, চলমান ভূ-রাজনৈতিক উন্নয়ন শক্তি ও খাদ্য নিরাপত্তার চ্যালেঞ্জের প্রতি বিশ্বের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের একজন দায়িত্বশীল সদস্য হিসাবে, ভারত তার অংশীদারদের সাথে মানবিক সহায়তা এবং খাদ্যশস্য সরবরাহের জন্য কাজ করেছে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

 

ট্যাগ:
জনপ্রিয়

সন্ত্রাস মোকাবেলায় চাই বিশ্ব একতা: রাজনাথ

ইত্তেহাদ ডেস্ক ।। প্রকাশ: ০৫:০৭:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর ২০২২

আসিয়ানের কেন্দ্রস্থলে একটি শান্তিপূর্ণ ইন্দো-প্যাসিফিক বিশ্বের নিরাপত্তা ও সমৃদ্ধির জন্য আগের চেয়ে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে বলে মনে করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। তিনি বলেন, ১০টি আসিয়ান দেশ এবং ৮টি প্রধান প্লাস দেশের অংশগ্রহণে শুধুমাত্র আঞ্চলিক নিরাপত্তার জন্যই নয়, বিশ্ব শান্তির জন্যও একটি চালক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং কম্বোডিয়ার সিয়েম রিপে নবম আসিয়ান প্রতিরক্ষা মন্ত্রীদের বৈঠকে ভাষণ দেওয়ার সময় এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, সবচেয়ে বড় হুমকি আন্তর্জাতিক ও আন্তঃসীমান্ত সন্ত্রাসবাদ থেকে। উদাসীনতা আর প্রতিক্রিয়া হতে পারে না, কারণ সন্ত্রাসবাদ বিশ্বব্যাপী শিকার তৈরি করেছে। তাই আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে জরুরী ও দৃঢ়ভাবে হস্তক্ষেপ করতে হবে।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো অর্থ স্থানান্তর এবং সমর্থকদের নিয়োগের জন্য নতুন যুগের কৌশল অবলম্বন করেছে এবং সমর্থিত মহাদেশ জুড়ে আন্তঃসংযোগ রয়েছে। সাইবার অপরাধ নতুন প্রযুক্তির ক্রমবর্ধমান ব্যবহারকেও নির্দেশ করে।

রাজনাথ সিং বলেন, রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সন্ত্রাসবিরোধী কমিটি ২৮-২৯ অক্টোবর নয়াদিল্লিতে বৈঠক করেছে এবং এই উন্নয়নগুলোকে গুরুত্ব সহকারে নোট করেছে। কমিটি সন্ত্রাসবাদী উদ্দেশ্যে নতুন এবং উদীয়মান প্রযুক্তির ব্যবহার রোধে ‘দিল্লি ঘোষণা’ গ্রহণ করেছে। সন্ত্রাসবাদ ক্রমাগত একটি বড় হুমকি হয়ে উঠলে, করোনা মহামারীর পরে উদ্ভূত অন্যান্য নিরাপত্তা উদ্বেগ উপেক্ষা করা যায় না।

মোদী মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণ এই সদস্য বলেন, চলমান ভূ-রাজনৈতিক উন্নয়ন শক্তি ও খাদ্য নিরাপত্তার চ্যালেঞ্জের প্রতি বিশ্বের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের একজন দায়িত্বশীল সদস্য হিসাবে, ভারত তার অংশীদারদের সাথে মানবিক সহায়তা এবং খাদ্যশস্য সরবরাহের জন্য কাজ করেছে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক