০৯:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ভারতের নৌবাহিনীতে যুক্ত নয়া যুদ্ধজাহাজ

ভারতীয় নৌবাহিনীতে রবিবার অন্তর্ভুক্ত হয়েছে যুদ্ধজাহাজ আইএনএস মরমুগাও। এতে আরো শক্তিশালী হলো ভারতের নৌবাহিনী। দেশটির দিকে ধেয়ে আসা ক্ষেপণাস্ত্র আটকাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে এই যুদ্ধজাহাজ। প্রায় দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি হওয়া এই যুদ্ধজাহাজের উদ্বোধন করেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। এসময়, তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ অনিল চৌহানও।

জানা গেছে, নতুন এই যুদ্ধজাহাজটি লম্বায় ১৬৩ মিটার। জাহাজটি তৈরি করতে যে উপাদান ব্যবহার করা হয়েছে তার ৭৫ শতাংশ তৈরি হয়েছে ভারতের মাটিতে। নানা ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র বহন করা ছাড়াও ভারতের দিকে নিক্ষেপ করা ক্ষেপণাস্ত্র আটকানোর ক্ষমতা রয়েছে এই যুদ্ধজাহাজের। সর্বোচ্চ সাত হাজার ৪০০ টন ওজনের জিনিস বহন করতে পারে আইএনএস মরমুগাও।

জাহাজটি উদ্বোধন করতে গিয়ে দেশীয় প্রযুক্তির উন্নতির কথা তুলে ধরেছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র বহনকারী জাহাজগুলোর মধ্যে অন্যতম ভারতের আইএনএস মরমুগাও। শুধু ক্ষেপণাস্ত্র বহন নয়, যুদ্ধজাহাজ হিসেবেও প্রথম সারিতে থাকবে ভারতের এই নতুন জাহাজ। নৌ প্রতিরক্ষায় ভারত কতখানি উন্নতি করেছে, আইএনএস মরমুগাও তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ। ‘

রাজনাথের মতে, যুদ্ধজাহাজ তৈরির ক্ষেত্রে দ্রুতগতিতে উন্নতি করেছে ভারত। ভবিষ্যতে বিশ্বের সকল নৌবাহিনীর জন্য যুদ্ধজাহাজ বানাতে পারে ভারত। ভবিষ্যতেও প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে আইএনএস মরমুগাও।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসে এই যুদ্ধজাহাজ তৈরির কাজ শুরু হয়েছিল। ২০২২ সালে নৌবাহিনীতে যাত্রা শুরু করল আইএনএস মরমুগাও। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

ভারতের নৌবাহিনীতে যুক্ত নয়া যুদ্ধজাহাজ

প্রকাশ: ০৫:৩৬:৫৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০২২

ভারতীয় নৌবাহিনীতে রবিবার অন্তর্ভুক্ত হয়েছে যুদ্ধজাহাজ আইএনএস মরমুগাও। এতে আরো শক্তিশালী হলো ভারতের নৌবাহিনী। দেশটির দিকে ধেয়ে আসা ক্ষেপণাস্ত্র আটকাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে এই যুদ্ধজাহাজ। প্রায় দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি হওয়া এই যুদ্ধজাহাজের উদ্বোধন করেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। এসময়, তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ অনিল চৌহানও।

জানা গেছে, নতুন এই যুদ্ধজাহাজটি লম্বায় ১৬৩ মিটার। জাহাজটি তৈরি করতে যে উপাদান ব্যবহার করা হয়েছে তার ৭৫ শতাংশ তৈরি হয়েছে ভারতের মাটিতে। নানা ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র বহন করা ছাড়াও ভারতের দিকে নিক্ষেপ করা ক্ষেপণাস্ত্র আটকানোর ক্ষমতা রয়েছে এই যুদ্ধজাহাজের। সর্বোচ্চ সাত হাজার ৪০০ টন ওজনের জিনিস বহন করতে পারে আইএনএস মরমুগাও।

জাহাজটি উদ্বোধন করতে গিয়ে দেশীয় প্রযুক্তির উন্নতির কথা তুলে ধরেছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র বহনকারী জাহাজগুলোর মধ্যে অন্যতম ভারতের আইএনএস মরমুগাও। শুধু ক্ষেপণাস্ত্র বহন নয়, যুদ্ধজাহাজ হিসেবেও প্রথম সারিতে থাকবে ভারতের এই নতুন জাহাজ। নৌ প্রতিরক্ষায় ভারত কতখানি উন্নতি করেছে, আইএনএস মরমুগাও তার প্রকৃষ্ট উদাহরণ। ‘

রাজনাথের মতে, যুদ্ধজাহাজ তৈরির ক্ষেত্রে দ্রুতগতিতে উন্নতি করেছে ভারত। ভবিষ্যতে বিশ্বের সকল নৌবাহিনীর জন্য যুদ্ধজাহাজ বানাতে পারে ভারত। ভবিষ্যতেও প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে আইএনএস মরমুগাও।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসে এই যুদ্ধজাহাজ তৈরির কাজ শুরু হয়েছিল। ২০২২ সালে নৌবাহিনীতে যাত্রা শুরু করল আইএনএস মরমুগাও। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক