০২:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দেউলিয়া লঙ্কার পাশে থাকবে ভারত

গত বছর চরম অর্থনৈতিক সংকটের মুখে দেউলিয়া হয়ে পড়ে শ্রীলঙ্কা। ওই সময় দেশটির প্রায় অনিশ্চিত ভবিষ্যতের মধ্যেও আর্থিক সহায়তা করে ভারত। এখনো আর্থিক মন্দার ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে পারেনি শ্রীলঙ্কা। এরই মধ্যে ফের দেশটির জনগণের পাশে দাঁড়ালো মোদী সরকার। ঋণভারে জর্জরিত শ্রীলঙ্কাকে আবারও আর্থিক সহায়তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ভারত, বাড়ানো হবে বিনিয়োগও।

বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) দেশটি সফরের সময় অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে নিজেদের বিনিয়োগ বৃদ্ধির প্রতিশ্রুতি দেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুব্রামনিয়াম জয়শঙ্কর। দেউলিয়া শ্রীলঙ্কাকে ২৯০ কোটি ডলারের ঋণ দিতে রাজি হয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল আইএমএফ। তবে কিছু শর্তপূরণ না করা পর্যন্ত স্থগিত থাকবে বেইল আউট বা ঋণছাড়ের প্রক্রিয়া। যার মধ্যে অন্যতম হলো, শ্রীলঙ্কার শীর্ষ ঋণদাতা চীন-ভারত ও জাপানের সমর্থন আদায়। সে ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিতেই জয়শঙ্করের এ কলম্বো সফর।

বিদ্যমান সংকট কাটাতে দ্বীপরাষ্ট্রকে নানা সহায়তার বিষয়েও আলোচনা হবে এ সফরে। দ্বিপাক্ষিক কয়েকটি ইস্যুতে চুক্তিও স্বাক্ষর করবে প্রতিবেশীরা। তবে বৈদেশিক ঋণ পেতে ভারতের পাশাপাশি চীনের সমর্থনও প্রয়োজন লঙ্কান সরকারের। মৌখিকভাবে দেশটির পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন শি জিনপিং প্রশাসন। তবে দিল্লি-বেইজিং সাম্প্রতিক টানাপোড়েন তাতে প্রভাব ফেলবে বলে শঙ্কা বিশ্লেষকদের। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

দেউলিয়া লঙ্কার পাশে থাকবে ভারত

প্রকাশ: ০৮:৩৭:৫১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৩

গত বছর চরম অর্থনৈতিক সংকটের মুখে দেউলিয়া হয়ে পড়ে শ্রীলঙ্কা। ওই সময় দেশটির প্রায় অনিশ্চিত ভবিষ্যতের মধ্যেও আর্থিক সহায়তা করে ভারত। এখনো আর্থিক মন্দার ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে পারেনি শ্রীলঙ্কা। এরই মধ্যে ফের দেশটির জনগণের পাশে দাঁড়ালো মোদী সরকার। ঋণভারে জর্জরিত শ্রীলঙ্কাকে আবারও আর্থিক সহায়তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ভারত, বাড়ানো হবে বিনিয়োগও।

বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) দেশটি সফরের সময় অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে নিজেদের বিনিয়োগ বৃদ্ধির প্রতিশ্রুতি দেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুব্রামনিয়াম জয়শঙ্কর। দেউলিয়া শ্রীলঙ্কাকে ২৯০ কোটি ডলারের ঋণ দিতে রাজি হয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল আইএমএফ। তবে কিছু শর্তপূরণ না করা পর্যন্ত স্থগিত থাকবে বেইল আউট বা ঋণছাড়ের প্রক্রিয়া। যার মধ্যে অন্যতম হলো, শ্রীলঙ্কার শীর্ষ ঋণদাতা চীন-ভারত ও জাপানের সমর্থন আদায়। সে ব্যাপারে নিশ্চয়তা দিতেই জয়শঙ্করের এ কলম্বো সফর।

বিদ্যমান সংকট কাটাতে দ্বীপরাষ্ট্রকে নানা সহায়তার বিষয়েও আলোচনা হবে এ সফরে। দ্বিপাক্ষিক কয়েকটি ইস্যুতে চুক্তিও স্বাক্ষর করবে প্রতিবেশীরা। তবে বৈদেশিক ঋণ পেতে ভারতের পাশাপাশি চীনের সমর্থনও প্রয়োজন লঙ্কান সরকারের। মৌখিকভাবে দেশটির পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন শি জিনপিং প্রশাসন। তবে দিল্লি-বেইজিং সাম্প্রতিক টানাপোড়েন তাতে প্রভাব ফেলবে বলে শঙ্কা বিশ্লেষকদের। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক