১০:২১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নতুন ভারত দেখছে বিশ্ব: রাজনাথ

ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেছেন যে, নতুন ভারতের ‘নতুন প্রতিরক্ষা খাত’ দেখছে বিশ্ব। বুধবার বেঙ্গালুরুতে ১৪তম অ্যারো ইন্ডিয়ার বন্ধন অনুষ্ঠানে সমাবেশে ভাষণ দিতে গিয়ে একথা বলেন রাজনাথ।

অ্যারো ইন্ডিয়ার কথা তুলে ধরে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, এই অনুষ্ঠান ভারতীয় প্রতিরক্ষা শিল্পকে শক্তিশালী করার নতুন পথ প্রশস্ত করেছে। এটিকে তিনি ‘আত্মনির্ভরতার’ একটি নতুন যুগের সূচনা বলে অভিহিত করেন।

প্রতিরক্ষা খাতকে আরও শক্তিশালী করতে এবং আমদানি নির্ভরতা কমাতে নেওয়া সরকারের বিভিন্ন বড় বড় পদক্ষেপকে নজিরবিহীন হিসেবে উল্লেখ করেন রাজনাথ।

তিনি বলেন, ‘আপনি যদি এক পদক্ষেপ নেন, সরকার দশ ধাপ এগিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়। আপনি উন্নয়নের পথে চলার জন্য জায়গার কথা বলেছেন। আমরা আপনাকে পুরো আকাশ দিচ্ছি। স্থানীয় শিল্পের জন্য মূলধন সংগ্রহের বাজেটের তিন-চতুর্থাংশ বরাদ্দ করা সেই দিকেই ইঙ্গিত করে।’

রাজনাথ বলেন, এই পদক্ষেপের মাধ্যমে ভারতীয় শিল্প আরও উৎসাহ নিয়ে এগিয়ে আসবে এবং প্রতিরক্ষা খাতকে আরও শক্তিশালী ও সমৃদ্ধ করতে অবদান রাখবে। একটি শক্তিশালী এবং স্বনির্ভর প্রতিরক্ষা শিল্প কেবল দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করে না বরং অর্থনীতিকেও শক্তিশালী করে।

রাজনাথ সিং কর্ণাটককে সেই ঐতিহাসিক রাজ্যগুলোর মধ্যে একটি হিসাবে বর্ণনা করেছেন যা ধারাবাহিকভাবে ভারতের অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে অবদান রাখছে। তিনি বলেন যে, অ্যারো ইন্ডিয়ার আয়োজনের জন্য কর্ণাটকের চেয়ে ভাল জায়গা আর হতে পারে না।

অ্যারো ইন্ডিয়া হলো একটি দ্বিবার্ষিক এয়ার শো এবং বিমান প্রদর্শনী। এটি ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের রাজধানী বেঙ্গালুরুর ইয়েলাহাঙ্কা এয়ার ফোর্স স্টেশনে অনুষ্ঠিত হয়। অ্যারো ইন্ডিয়া এশিয়ার বৃহত্তম এয়ার শো। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

ট্যাগ:

নতুন ভারত দেখছে বিশ্ব: রাজনাথ

প্রকাশ: ০৮:৪৭:০২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেছেন যে, নতুন ভারতের ‘নতুন প্রতিরক্ষা খাত’ দেখছে বিশ্ব। বুধবার বেঙ্গালুরুতে ১৪তম অ্যারো ইন্ডিয়ার বন্ধন অনুষ্ঠানে সমাবেশে ভাষণ দিতে গিয়ে একথা বলেন রাজনাথ।

অ্যারো ইন্ডিয়ার কথা তুলে ধরে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, এই অনুষ্ঠান ভারতীয় প্রতিরক্ষা শিল্পকে শক্তিশালী করার নতুন পথ প্রশস্ত করেছে। এটিকে তিনি ‘আত্মনির্ভরতার’ একটি নতুন যুগের সূচনা বলে অভিহিত করেন।

প্রতিরক্ষা খাতকে আরও শক্তিশালী করতে এবং আমদানি নির্ভরতা কমাতে নেওয়া সরকারের বিভিন্ন বড় বড় পদক্ষেপকে নজিরবিহীন হিসেবে উল্লেখ করেন রাজনাথ।

তিনি বলেন, ‘আপনি যদি এক পদক্ষেপ নেন, সরকার দশ ধাপ এগিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়। আপনি উন্নয়নের পথে চলার জন্য জায়গার কথা বলেছেন। আমরা আপনাকে পুরো আকাশ দিচ্ছি। স্থানীয় শিল্পের জন্য মূলধন সংগ্রহের বাজেটের তিন-চতুর্থাংশ বরাদ্দ করা সেই দিকেই ইঙ্গিত করে।’

রাজনাথ বলেন, এই পদক্ষেপের মাধ্যমে ভারতীয় শিল্প আরও উৎসাহ নিয়ে এগিয়ে আসবে এবং প্রতিরক্ষা খাতকে আরও শক্তিশালী ও সমৃদ্ধ করতে অবদান রাখবে। একটি শক্তিশালী এবং স্বনির্ভর প্রতিরক্ষা শিল্প কেবল দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করে না বরং অর্থনীতিকেও শক্তিশালী করে।

রাজনাথ সিং কর্ণাটককে সেই ঐতিহাসিক রাজ্যগুলোর মধ্যে একটি হিসাবে বর্ণনা করেছেন যা ধারাবাহিকভাবে ভারতের অর্থনৈতিক অগ্রগতিতে অবদান রাখছে। তিনি বলেন যে, অ্যারো ইন্ডিয়ার আয়োজনের জন্য কর্ণাটকের চেয়ে ভাল জায়গা আর হতে পারে না।

অ্যারো ইন্ডিয়া হলো একটি দ্বিবার্ষিক এয়ার শো এবং বিমান প্রদর্শনী। এটি ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের রাজধানী বেঙ্গালুরুর ইয়েলাহাঙ্কা এয়ার ফোর্স স্টেশনে অনুষ্ঠিত হয়। অ্যারো ইন্ডিয়া এশিয়ার বৃহত্তম এয়ার শো। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক