সোমবার ● ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

ঘোষণা
প্রিয় পাঠকমন্ডলী, নতুন রূপে, নব উদ্যমে- দেশ ও দশের তথ্যতৃষ্ণা মেটাতে জাগ্রত, নির্ভীক ও সচেতন দৈনিক ইত্তেহাদ-এর নির্মাণপর্ব চলছে, পাশেই থাকুন...
অংশীদারিত্বের নয়া যুগে ভারত-ভূটান

অংশীদারিত্বের নয়া যুগে ভারত-ভূটান

ডোকলাম ইস্যুতে সদ্য থিম্পুর পাল্লা চিনের দিকে ভারী হতে দেখা গিয়েছে। সেই তর্ক বিতর্কের রেশ কাটতে না কাটতেই এবার ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগিয়াল ওয়াংচুকের সঙ্গে মোদীর সাক্ষাৎ হল। দক্ষিণ এশিয়ার সাম্প্রতিক সময়ে এই সাক্ষাক্ষ কূটনৈতিক দিক থেকে বেশ প্রাসঙ্গিক। উল্লেখ্য, সোমবারই ভারতে ২ দিনের সফরে পা রেখেছেন ভুটানের রাজা।

মঙ্গলবার ভুটানের রাজা জিগমে খেসার নামগেল ওয়াংচুকের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ভুটানের রাজার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের পর পররাষ্ট্র সচিব বিনয় মোহন কোয়াত্রা বলেছেন যে জাতীয় স্বার্থের উপর প্রভাব ফেলে এমন বিষয়গুলি রক্ষা করার জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে ভারত।

জানা গিয়েছে, ওয়াংচুকের সঙ্গে অর্থনৈতিক সহযোগিতা সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে দ্বিপাক্ষিক সম্পৃক্ততা জোরদার করার উপায় নিয়ে আলোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। ভারতের বিদেশ সচিব বিনয়মোহন কোয়াত্রা জানিয়েছেন, বৈঠকে সরাসরি ডোকলাম এবং চিনের প্রসঙ্গে আলোচনা হয়নি।

আসুন জেনে নিই এই দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের দশটি বিশেষ লক্ষণীয় বিষয়:

১। ভারত ভুটানের ১৩তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা এবং এর সংস্কার প্রকল্পগুলির জন্য প্রাসঙ্গিক আর্থিক সহায়তা প্রদান করার অঙ্গীকার করেছে।

২। ভারত এবং ভুটান তাদের অর্থনৈতিক ও উন্নয়নমূলক অংশীদারিত্ব জোরদার করতে সম্মত হয়েছে।

৩। ভুটানের অনুরোধে ভারত একটি অতিরিক্ত স্ট্যান্ডবাই ক্রেডিট সুবিধা প্রসারিত করতে কাজ করবে। এটি দুই দেশের মধ্যে চালু থাকা দুটি বিদ্যমান স্ট্যান্ডবাই ক্রেডিট সুবিধার উপরে স্থান পাবে।

৪। ভারত ভুটান থেকে কৃষিপণ্য রপ্তানির জন্য দীর্ঘমেয়াদী টেকসই ব্যবস্থা গঠনের জন্য কাজ করবে।

৫। ভুটানে পেট্রোলিয়াম, সার এবং কয়লা সহ গুরুত্বপূর্ণ পণ্যের স্বল্প সরবরাহের জন্য দীর্ঘমেয়াদী দ্বিপাক্ষিক ব্যবস্থা গড়ে তুলতে সম্মত হয়েছে দু পক্ষ।

৬। ভারত-ভুটান সীমান্তে প্রথম ইন্টিগ্রেটেড চেক পোস্ট (আইসিপি) স্থাপনের পরীক্ষা ও বিবেচনা শুরু করছে উভয় পক্ষ, যা জয়গাঁওয়ের কাছাকাছি কোথাও হবে।

৭। কোকরাঝাড়-গেলেফু রেল সংযোগ প্রকল্পটি হতে চলেছে দুই দেশের মধ্যে প্রথম রেল সংযোগ। ভারত সরকারের সহায়তার মাধ্যমে প্রস্তাবিত প্রকল্পটি ত্বরান্বিত করার চেষ্টা করা হবে।

৮। ভারত ভুটানের সাথে প্রাচীনতম জলবিদ্যুৎ প্রকল্প, ছুখা জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের শুল্কের ঊর্ধ্বমুখী সংশোধনে সম্মত হয়েছে৷ এছাড়া, ভারত বাসোচু জলবিদ্যুৎ প্রকল্প থেকে বিদ্যুৎ বিক্রির জন্য ভুটানের অনুরোধকে ‘ইতিবাচকভাবে’ বিবেচনা করবে।

৯। উভয় পক্ষ নতুন জলবিদ্যুৎ প্রকল্প, সংকোশ জলবিদ্যুৎ প্রকল্প সহ রূপরেখা চূড়ান্ত করার চেষ্টা করবে এবং ত্বরান্বিত করবে।

১০। উপরন্তু, উভয় পক্ষ তাদের শক্তি অংশীদারিত্ব প্রসারিত করতে চাইছে বিশেষ করে সৌর ক্ষেত্রে অ-হাইড্রো-নবায়নযোগ্য অন্তর্ভুক্ত করার জন্য, এবং ই-মোবিলিটির ক্ষেত্রে দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতা কীভাবে প্রসারিত করা যেতে পারে তাও অন্বেষণ করছে। খবর: ইন্ডিয়া নিউজ নেটওয়ার্ক

শেয়ার করুন




©সর্বস্বত্ব স্বত্ত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১-২০২২
Designed and developed by Smk Ishtiak