০২:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

স্থায়ী ব্যাটিং পজিশন চান মিরাজ

কখনো ওপেনিং, কখনো ৭ নম্বরে, কখনো ওয়ান ডাউন। ফরচুন বরিশালের হয়ে মেহেদী হাসান মিরাজের ব্যাটিং পজিশন এবারের বিপিএলে।

দেখলে মনে হতেই পারে ‘মিউজিক্যাল চেয়ার’ গেম। এতদিন উপভোগের কথা জানালেও এবার খোদ মিরাজেরই আকুতি, স্থায়ী ব্যাটিং পজিশনের।

ব্যাট হাতে ছন্দে থাকা এই ক্রিকেটার সর্বশেষ ২ ম্যাচে দেখিয়েছেন ঝলক। এই ২ ম্যাচেই মিরাজকে খেলানো হয়েছে ৭ নম্বরে। ২৬ বছর বয়সী ক্রিকেটার জানিয়ে দিলেন, এই পজিশনেও যদি নিয়মিত ব্যাট করতে হয়, কোনো আপত্তি নেই তার।

বৃহস্পতিবার সিলেটে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, প্রত্যেক ম্যাচেই আমাকে ভিন্ন ভিন্ন ভূমিকা পালন করতে হয়েছে। বিভিন্ন পজিশনে খেলতে হয়েছে। বিভিন্ন পজিশনে খেলা কঠিন।

একেকদিন একেক পরিস্থিতি আসে। তার পরও গত তিনটি ইনিংসে আমি খুশি। ছোট ছোট ইনিংস ছিল কিন্তু দলে কন্ট্রিবিউশন ভালো ছিল। এজন্য আমি খুশি। যদি সুযোগ পাই অবশ্যই বড় ইনিংস খেলার চেষ্টা করব।

এর পরই মিরাজের আকুতি-তাকে যেন নির্দিষ্ট একটা ব্যাটিং পজিশন দেওয়া হয়। তার ধারণা, সামনের ম্যাচগুলোতে ৭ নম্বরে ফিনিশারের ভুমিকাই পালন করতে হবে নিয়মিত।

মিরাজ বলেন, একটা জায়গায় নিজেকে ফিক্সড করতে পারলে খুব ভালো লাগবে। তবে টিম কম্বিনেশন আছে, দলের পরিকল্পনা আছে।

এজন্য হয়ত আমাকে বিভিন্ন পজিশনে দেওয়া হচ্ছে। আমি কোচ-ক্যাপ্টেনের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা হয়ত আমাকে একটা পজিশন… যেমন গত ২ ইনিংস একটা জায়গাতেই খেলিয়েছেন। হয়ত চিন্তা করছেন এখানে খেললে দলের জন্য ভালো হবে।

যেমন গত ৩ ইনিংস আলহামদুলিল্লাহ আমি খুশি। চেষ্টা করেছি যতটুকু পারি ভালো খেলার। দিনশেষে দল ভালো ফলাফল পেলে ভালো লাগে। চেষ্টা করছি নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার জন্য।

 

ট্যাগ:

স্থায়ী ব্যাটিং পজিশন চান মিরাজ

প্রকাশ: ১০:২৮:১৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

কখনো ওপেনিং, কখনো ৭ নম্বরে, কখনো ওয়ান ডাউন। ফরচুন বরিশালের হয়ে মেহেদী হাসান মিরাজের ব্যাটিং পজিশন এবারের বিপিএলে।

দেখলে মনে হতেই পারে ‘মিউজিক্যাল চেয়ার’ গেম। এতদিন উপভোগের কথা জানালেও এবার খোদ মিরাজেরই আকুতি, স্থায়ী ব্যাটিং পজিশনের।

ব্যাট হাতে ছন্দে থাকা এই ক্রিকেটার সর্বশেষ ২ ম্যাচে দেখিয়েছেন ঝলক। এই ২ ম্যাচেই মিরাজকে খেলানো হয়েছে ৭ নম্বরে। ২৬ বছর বয়সী ক্রিকেটার জানিয়ে দিলেন, এই পজিশনেও যদি নিয়মিত ব্যাট করতে হয়, কোনো আপত্তি নেই তার।

বৃহস্পতিবার সিলেটে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, প্রত্যেক ম্যাচেই আমাকে ভিন্ন ভিন্ন ভূমিকা পালন করতে হয়েছে। বিভিন্ন পজিশনে খেলতে হয়েছে। বিভিন্ন পজিশনে খেলা কঠিন।

একেকদিন একেক পরিস্থিতি আসে। তার পরও গত তিনটি ইনিংসে আমি খুশি। ছোট ছোট ইনিংস ছিল কিন্তু দলে কন্ট্রিবিউশন ভালো ছিল। এজন্য আমি খুশি। যদি সুযোগ পাই অবশ্যই বড় ইনিংস খেলার চেষ্টা করব।

এর পরই মিরাজের আকুতি-তাকে যেন নির্দিষ্ট একটা ব্যাটিং পজিশন দেওয়া হয়। তার ধারণা, সামনের ম্যাচগুলোতে ৭ নম্বরে ফিনিশারের ভুমিকাই পালন করতে হবে নিয়মিত।

মিরাজ বলেন, একটা জায়গায় নিজেকে ফিক্সড করতে পারলে খুব ভালো লাগবে। তবে টিম কম্বিনেশন আছে, দলের পরিকল্পনা আছে।

এজন্য হয়ত আমাকে বিভিন্ন পজিশনে দেওয়া হচ্ছে। আমি কোচ-ক্যাপ্টেনের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা হয়ত আমাকে একটা পজিশন… যেমন গত ২ ইনিংস একটা জায়গাতেই খেলিয়েছেন। হয়ত চিন্তা করছেন এখানে খেললে দলের জন্য ভালো হবে।

যেমন গত ৩ ইনিংস আলহামদুলিল্লাহ আমি খুশি। চেষ্টা করেছি যতটুকু পারি ভালো খেলার। দিনশেষে দল ভালো ফলাফল পেলে ভালো লাগে। চেষ্টা করছি নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার জন্য।