০২:৫৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ত্বকে ব্রনের সমস্যায় অয়েল ফ্রি মেকআপ

মুখের ত্বকে ব্রন ও ফুসকুড়ির সমস্যা হতেই পারে। তার জন্য চিন্তার কিছু নেই। বিয়ে বা নিমন্ত্রণে যেতে চাইলেও করতে পারেন মেকআপ। কোন কিছুই আটকে রাখা বা বাদ দেওয়ার প্রয়োজন নেই। প্রয়োজন বাড়তি যত্ন ও সচেতনতা। জেনে নিন এসব ত্বকে মেকআপ করতে কী ধরনের সতর্কতা মানতে হবে।

মেকআপের প্রথম ধাপই ফাউন্ডেশন। কিন্তু এসব ত্বকে ফাউন্ডেশন লাগাতেই বেড়ে যায় ব্রন বা ফুসকুড়ি। কোনো অনুষ্ঠান থাকলে তো মেকআপ করবেনই। এ ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজার। কারণ ব্রন বা ফুসকুড়ি থাকলে অয়েল ফ্রি প্রডাক্ট ব্যবহার করাই ভাল। না হলে ব্রন বেড়ে যেতে পারে। আসলে তৈলাক্ত ত্বকে ব্রন আর ফুসকুড়ির সমস্যা প্রায়ই দেখা যায়। মুখের অয়েল গ্ল্যান্ড ওভারঅ্যাক্টিভ বলে এমন হয়। অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজার তাই এসব ত্বকের জন্য বেস্ট। এতে ত্বকের শুষ্কতা দূর হয়, আর মুখ তেলতেলে করে না। ফলে ব্রন নিয়ন্ত্রণে থাকে।

অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজারের মতো ফাউন্ডেশন পাওয়া যায়। এগুলোতে ব্রন বা ফুসকুড়ি বাড়বে না। প্রডাক্ট কেনার সময় ছোট্ট একটা টিপস মাথায় রাখতে পারেন। এখন সব দোকানেই স্কিন কেয়ার কাউন্টার থাকে। সেখানে অয়েল ফ্রি ফাউন্ডেশন চাইলেই দেবে। আর সেখানে টেস্টেরও সুযোগ থাকে। তাই থুতনি বা কনুইতে স্পট টেস্ট করে নিতে পারেন।

এক ফোঁটা ফাউন্ডেশন নিয়ে থুতনি বা কনুইতে লাগান। ভাল করে মেশান। যদি দেখেন সাদা ফ্যাটফ্যাট করছে তা হলে বুঝবেন এই প্রডাক্ট আপনার জন্য নয়। আর যদি ভালভাবে ব্লেন্ড করে যায়, তা হলে এটি আপনার স্কিনের জন্য পারফেক্ট। এভাবেই ট্রায়াল মেথডে নিজের ত্বকের জন্য সঠিক পণ্য বেছে নিতে পারেন।

ট্যাগ:

ত্বকে ব্রনের সমস্যায় অয়েল ফ্রি মেকআপ

প্রকাশ: ০৭:০৭:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মুখের ত্বকে ব্রন ও ফুসকুড়ির সমস্যা হতেই পারে। তার জন্য চিন্তার কিছু নেই। বিয়ে বা নিমন্ত্রণে যেতে চাইলেও করতে পারেন মেকআপ। কোন কিছুই আটকে রাখা বা বাদ দেওয়ার প্রয়োজন নেই। প্রয়োজন বাড়তি যত্ন ও সচেতনতা। জেনে নিন এসব ত্বকে মেকআপ করতে কী ধরনের সতর্কতা মানতে হবে।

মেকআপের প্রথম ধাপই ফাউন্ডেশন। কিন্তু এসব ত্বকে ফাউন্ডেশন লাগাতেই বেড়ে যায় ব্রন বা ফুসকুড়ি। কোনো অনুষ্ঠান থাকলে তো মেকআপ করবেনই। এ ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজার। কারণ ব্রন বা ফুসকুড়ি থাকলে অয়েল ফ্রি প্রডাক্ট ব্যবহার করাই ভাল। না হলে ব্রন বেড়ে যেতে পারে। আসলে তৈলাক্ত ত্বকে ব্রন আর ফুসকুড়ির সমস্যা প্রায়ই দেখা যায়। মুখের অয়েল গ্ল্যান্ড ওভারঅ্যাক্টিভ বলে এমন হয়। অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজার তাই এসব ত্বকের জন্য বেস্ট। এতে ত্বকের শুষ্কতা দূর হয়, আর মুখ তেলতেলে করে না। ফলে ব্রন নিয়ন্ত্রণে থাকে।

অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজারের মতো ফাউন্ডেশন পাওয়া যায়। এগুলোতে ব্রন বা ফুসকুড়ি বাড়বে না। প্রডাক্ট কেনার সময় ছোট্ট একটা টিপস মাথায় রাখতে পারেন। এখন সব দোকানেই স্কিন কেয়ার কাউন্টার থাকে। সেখানে অয়েল ফ্রি ফাউন্ডেশন চাইলেই দেবে। আর সেখানে টেস্টেরও সুযোগ থাকে। তাই থুতনি বা কনুইতে স্পট টেস্ট করে নিতে পারেন।

এক ফোঁটা ফাউন্ডেশন নিয়ে থুতনি বা কনুইতে লাগান। ভাল করে মেশান। যদি দেখেন সাদা ফ্যাটফ্যাট করছে তা হলে বুঝবেন এই প্রডাক্ট আপনার জন্য নয়। আর যদি ভালভাবে ব্লেন্ড করে যায়, তা হলে এটি আপনার স্কিনের জন্য পারফেক্ট। এভাবেই ট্রায়াল মেথডে নিজের ত্বকের জন্য সঠিক পণ্য বেছে নিতে পারেন।