১০:৫০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাড়ল বিদ্যুতের দাম, মার্চ থেকেই কার্যকর

আরেক দফা বাড়ানো হচ্ছে বিদ্যুতের দাম। প্রতি ইউনিটে বিদ্যুতের দাম সর্বনিম্ন ৩৪ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ৭০ পয়সা পর্যন্ত বাড়াচ্ছে সরকার। যা মার্চ থেকেই কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

মঙ্গলবার (২৭ জানুয়ারি) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান প্রতিমন্ত্রী।

বিদ্যুতে বর্তমানে সরকার বছরে ৪৩ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেয় জানিয়ে নসরুল হামিদ বলেন, ভর্তুকি থেকে বের হয়ে যাওয়ার জন্য বিদ্যুতের দাম সমন্বয় করা হবে। প্রতি ইউনিটে দাম বাড়ছে সর্বনিম্ন ৩৪ পয়সা। মার্চ মাস থেকেই বিদ্যুতের এই নতুন দাম কার্যকর হবে।

নসরুল হামিদ বলেন, ভর্তুকি তুলে নেওয়ার অংশ হিসেবে আগামী ৩ বছর বিদ্যুতের দাম সমন্বয় করা হবে। এ ছাড়া গ্যাসের দাম বাড়ছে জানিয়ে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী বলেন, তবে সেটি বাসাবাড়ির গ্রাহক ও শিল্প পর্যায়ে নয়। শুধুমাত্র যে গ্যাস ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হয় সেই গ্যাসের দাম বাড়তে পারে।

এর আগে, গত ২৫ ফেব্রুয়ারি একটি বেসরকারি গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাতকারে নসরুল হামিদ বলেন, আগামী ১ মার্চ থেকে গড়ে ৭ শতাংশ হারে বিদ্যুতের দাম বাড়বে।

তিনি আরও বলেছিলেন, আমি কিন্তু বারবার একটা কথা বলে আসছি, আমরা দাম বাড়াচ্ছি না। আমরা সমন্বয় করছি। পাইকারি পর্যায়েও বিদ্যুতের দাম সমন্বয় করা হবে। তবে ভোক্তাদের ওপর যাতে খুব বেশি প্রভাব না পড়ে, সেভাবেই বাড়ানো হবে দাম।

প্রসঙ্গত, বর্তমান সরকারের ১৫ বছরের মেয়াদে গ্রাহক পর্যায়ে এ পর্যন্ত ১৩ বার বাড়ানো হয়েছে বিদ্যুতের দাম। এছাড়া পাইকারি পর্যায়ে বাড়ানো হয়েছে ১২ বার। গত বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি খুচরা পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম পাঁচ শতাংশ হারে বাড়ানো হয়, যা ওই বছরের মার্চ থেকে কার্যকর হয়।

ট্যাগ:

বাড়ল বিদ্যুতের দাম, মার্চ থেকেই কার্যকর

প্রকাশ: ০৭:১০:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

আরেক দফা বাড়ানো হচ্ছে বিদ্যুতের দাম। প্রতি ইউনিটে বিদ্যুতের দাম সর্বনিম্ন ৩৪ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ৭০ পয়সা পর্যন্ত বাড়াচ্ছে সরকার। যা মার্চ থেকেই কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

মঙ্গলবার (২৭ জানুয়ারি) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান প্রতিমন্ত্রী।

বিদ্যুতে বর্তমানে সরকার বছরে ৪৩ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেয় জানিয়ে নসরুল হামিদ বলেন, ভর্তুকি থেকে বের হয়ে যাওয়ার জন্য বিদ্যুতের দাম সমন্বয় করা হবে। প্রতি ইউনিটে দাম বাড়ছে সর্বনিম্ন ৩৪ পয়সা। মার্চ মাস থেকেই বিদ্যুতের এই নতুন দাম কার্যকর হবে।

নসরুল হামিদ বলেন, ভর্তুকি তুলে নেওয়ার অংশ হিসেবে আগামী ৩ বছর বিদ্যুতের দাম সমন্বয় করা হবে। এ ছাড়া গ্যাসের দাম বাড়ছে জানিয়ে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী বলেন, তবে সেটি বাসাবাড়ির গ্রাহক ও শিল্প পর্যায়ে নয়। শুধুমাত্র যে গ্যাস ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হয় সেই গ্যাসের দাম বাড়তে পারে।

এর আগে, গত ২৫ ফেব্রুয়ারি একটি বেসরকারি গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাতকারে নসরুল হামিদ বলেন, আগামী ১ মার্চ থেকে গড়ে ৭ শতাংশ হারে বিদ্যুতের দাম বাড়বে।

তিনি আরও বলেছিলেন, আমি কিন্তু বারবার একটা কথা বলে আসছি, আমরা দাম বাড়াচ্ছি না। আমরা সমন্বয় করছি। পাইকারি পর্যায়েও বিদ্যুতের দাম সমন্বয় করা হবে। তবে ভোক্তাদের ওপর যাতে খুব বেশি প্রভাব না পড়ে, সেভাবেই বাড়ানো হবে দাম।

প্রসঙ্গত, বর্তমান সরকারের ১৫ বছরের মেয়াদে গ্রাহক পর্যায়ে এ পর্যন্ত ১৩ বার বাড়ানো হয়েছে বিদ্যুতের দাম। এছাড়া পাইকারি পর্যায়ে বাড়ানো হয়েছে ১২ বার। গত বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি খুচরা পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম পাঁচ শতাংশ হারে বাড়ানো হয়, যা ওই বছরের মার্চ থেকে কার্যকর হয়।