১২:০০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সৌরভের ‘লাল বল’ ভাবনা

ঈশান কিষান ও শ্রেয়াস আইয়ারকে নিয়ে তোলপাড় চলছে ভারতের ক্রিকেটে। রঞ্জি ট্রফি না খেলায় দুই ক্রিকেটারকে নিজেদের কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ দিয়েছে ভারতের ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। তবে ইএসপিএন ক্রিকইনফো গত ২৮ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত প্রতিবেদনে অন্য দাবিও করেছে। চলতি ভারত–ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজে খেলার জন্য কিষানের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল বিসিসিআই। কিন্তু কিষান নাকি খেলতে রাজি হননি।

ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলো দাবি করেছে, কিষান ও আইয়ার ফিট ছিলেন এবং জাতীয় দলের খেলাও ছিল না। এমন অবস্থায় তাঁরা নিজ নিজ রাজ্য দলের হয়ে না খেলায় চুক্তি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তবে ঘটনা যেটাই হোক, আসল ব্যাপার হলো দুজনেই লাল বলের ক্রিকেট খেলতে অনাগ্রহ দেখিয়েছেন। আর খেলোয়াড়দের বেড়ে ওঠায় লাল বলের ক্রিকেট খেলার গুরুত্ব নিয়েই ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’র সঙ্গে দীর্ঘ আলাপ করেছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক ও বিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী।

কিষান ও আইয়ারের ব্যাপারে সৌরভ বলেছেন, সম্ভবত এই প্রথম লাল বলের ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতে অসম্মতি জানাল কেউ। হাতে সময় থাকলে জাতীয় দলের সবাই ঘরোয়ায় খেলেন বলে দাবি করেন সৌরভ। এ প্রসঙ্গে তাঁকে বলা হয়েছিল, আইপিএল সামনে রেখে ভারতের তরুণ ক্রিকেটারদের প্রজন্ম সম্ভবত সাদা বলের খেলাকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে দেখছে। যদিও ভারতের টেস্ট দলে খেলার সুযোগটাও কিন্তু সবাই পায় না…।

সৌরভের উত্তর, ‘ওরা দুজনেই লাল ও সাদা বলের ক্রিকেট খেলতে পারে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের পাশাপাশি আইপিএল ক্যারিয়ারও বড় হবে তাতে। দুটির সূচি তো আর সাংঘর্ষিক না। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট শেষ হওয়ার পর আইপিএল শুরু হতে মাঝে প্রায় এক মাস সময় থাকে। তাই আমি কোনো সমস্যা দেখি না। অনেক উঁচু মানের খেলোয়াড় টেস্টের পাশাপাশি সাদা বলেও খেলেন।’

ট্যাগ:

সৌরভের ‘লাল বল’ ভাবনা

প্রকাশ: ০৮:০৮:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪

ঈশান কিষান ও শ্রেয়াস আইয়ারকে নিয়ে তোলপাড় চলছে ভারতের ক্রিকেটে। রঞ্জি ট্রফি না খেলায় দুই ক্রিকেটারকে নিজেদের কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে বাদ দিয়েছে ভারতের ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। তবে ইএসপিএন ক্রিকইনফো গত ২৮ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত প্রতিবেদনে অন্য দাবিও করেছে। চলতি ভারত–ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজে খেলার জন্য কিষানের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল বিসিসিআই। কিন্তু কিষান নাকি খেলতে রাজি হননি।

ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলো দাবি করেছে, কিষান ও আইয়ার ফিট ছিলেন এবং জাতীয় দলের খেলাও ছিল না। এমন অবস্থায় তাঁরা নিজ নিজ রাজ্য দলের হয়ে না খেলায় চুক্তি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তবে ঘটনা যেটাই হোক, আসল ব্যাপার হলো দুজনেই লাল বলের ক্রিকেট খেলতে অনাগ্রহ দেখিয়েছেন। আর খেলোয়াড়দের বেড়ে ওঠায় লাল বলের ক্রিকেট খেলার গুরুত্ব নিয়েই ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’র সঙ্গে দীর্ঘ আলাপ করেছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক ও বিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী।

কিষান ও আইয়ারের ব্যাপারে সৌরভ বলেছেন, সম্ভবত এই প্রথম লাল বলের ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতে অসম্মতি জানাল কেউ। হাতে সময় থাকলে জাতীয় দলের সবাই ঘরোয়ায় খেলেন বলে দাবি করেন সৌরভ। এ প্রসঙ্গে তাঁকে বলা হয়েছিল, আইপিএল সামনে রেখে ভারতের তরুণ ক্রিকেটারদের প্রজন্ম সম্ভবত সাদা বলের খেলাকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে দেখছে। যদিও ভারতের টেস্ট দলে খেলার সুযোগটাও কিন্তু সবাই পায় না…।

সৌরভের উত্তর, ‘ওরা দুজনেই লাল ও সাদা বলের ক্রিকেট খেলতে পারে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের পাশাপাশি আইপিএল ক্যারিয়ারও বড় হবে তাতে। দুটির সূচি তো আর সাংঘর্ষিক না। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট শেষ হওয়ার পর আইপিএল শুরু হতে মাঝে প্রায় এক মাস সময় থাকে। তাই আমি কোনো সমস্যা দেখি না। অনেক উঁচু মানের খেলোয়াড় টেস্টের পাশাপাশি সাদা বলেও খেলেন।’